যুক্তরাষ্ট্রে হারিকেন ন্যাটের আঘাত

যুক্তরাষ্ট্রের উপসাগরীয় উপকূলাঞ্চলে হারিকেন ন্যাটে আঘাত হেনেছে।

এর প্রভাবে ঝড়ো বাতাস ও মূষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে। সাগরে পানির উচ্চতা বাড়ছে। ফলে ক্যাটাগরি-১ তীব্রতার এই ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ঘণ্টায় ১৩৭ কিলোমিটার গতিতে প্রবাহিত হচ্ছে ন্যাটে। এর প্রভাবে শনিবার মধ্যরাতে লুজিয়ানা রাজ্যের মিসিসিপি নদীর মুখে ভারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। উত্তরে প্রবাহিত হয়ে মিসিসিপি রাজ্যের বিলোক্সিতে দ্বিতীয়বার বৃষ্টিপাত ঘটিয়েছে ন্যাটে।

সাগরে পানির উচ্চতা দ্রুত বেড়ে যাওয়ায় প্রাণহানির আশঙ্কা থেকে লুজিয়ানা, মিসিসিপি ও আলাবামায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। নিম্নাঞ্চল থেকে লোকজন সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

এর আগে কোস্টারিকা, নিকারাগুয়া ও হন্ডুরাসের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার সময় ন্যাটের তাণ্ডবে কমপক্ষে ২৫ জন মারা গেছে। এরপর এটি যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানে।

গত মাসের হারিকেন মারিয়া ও ইরমান মতো শক্তিশালী না হলেও কর্মকর্তারা সতর্ক করে বলেছেন, দ্রুত ধাবিত হওয়া ন্যাটে নিম্নাঞ্চলে বন্যার কারণ হয়ে উঠতে পারে।

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক জরুরি ঘোষণায় লুজিয়ানা রাজ্যে হারিকেন মোকাবিলার প্রস্তুতি ও সম্ভাব্য ত্রাণ তৎপরতার বিষয়ে কেন্দ্র সরকারকে নির্দেশনা দিয়েছেন। আলাবামায় রিপাবলিকান গভর্নর কায় ইভি লোকজনকে পূর্বসতর্কতা অবলম্বন করতে বলেছেন।

মোট চারটি রাজ্যে সতর্কতা জারি করে ঝুঁকিপূর্ণ লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া পূর্বসতর্কতা হিসেবে উপসাগরীয় পাঁচটি বন্দর বন্ধ রাখা হয়েছে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন

You Might Also Like