যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা : বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ১

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলাইনার শারলোটে পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলার সময় গুলিতে নিহত হয়েছেন আরেক ব্যক্তি।

শারলোট পুলিশের প্রধান কের পুটনি জানিয়েছেন, বুধবার রাতে বিক্ষোভ চলার সময় যিনি মারা গেছেন, তার পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তা ছাড়া, তিনি বুধবারের বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন কি না, তাও পরিষ্কার নয়।

আলজাজিরা অনলাইনের এক খবরে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ সহিংস হয়ে উঠলে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়ে।

বিক্ষুব্ধ জনতা শারলোটের কেন্দ্রাঞ্চলের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় তাদের সামনে পুলিশের প্যাট্রোল কার পড়ে। ভাঙচুর চালায় বিক্ষোভকারীরা। ওমনি শারলোট হোটেলের সামনেও তারা পুলিশের দিকে ধেয়ে যায়। এ সময় পুলিশ প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করে।

এদিকে বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে মেয়র জেনিফার রবার্টস বলেন, ‘আমরা শান্তি চাই। আমরা শান্ত থাকতে চাই। চাই সংলাপ করতে।’ তিনি আরো বলেন, ‘বিষয়টিকে আমরা সবাই ট্র্যাজেডি হিসেবে দেখছি।’

মঙ্গলবার শারলোটের একটি আবাসিক ভবনে এক অপরাধীকে ধরতে যায় পুলিশ। সেখানে পুলিশের গুলিতে নিহত হন কিথ ল্যামন্ট স্কট (৪৩)। তার এ মৃত্যুকে কৃষ্ণাঙ্গদের প্রতি পুলিশের বর্বর আচরণ বলে দাবি করে এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভে নামে শারলোটের মানুষ।

পুলিশের দাবি, কিথ ল্যামন্ট স্কটের কাছে অস্ত্র ছিল এবং তিনি পুলিশের দিকে বন্দুক তাক করার পর তার ওপর গুলি চালানো হয়। কিন্তু প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, স্কটের কাছে অস্ত্র ছিল না। তারপরও তাকে গুলি করা হয়, কারণ তিনি কৃষ্ণাঙ্গ।

You Might Also Like