যশোরে স্কুলছাত্র খুন

যশোরে এক স্কুলছাত্র খুন হয়েছে। রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭ টার দিকে দুই ব্যক্তি রাকিব রায়হান (২০) কে গুরুতর অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে ফেলে যায়।

জরুরি বিভাগের কর্মচারিা তাকে ভেতরে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কাজল মল্লিক মৃত ঘোষণা করেন। রাকিবের বুকে ও পেটে ছুরিকাঘাতের চারটি চিহ্ন রয়েছে।

যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই মিরাজ মোসাদ্দেক জানান, রাকিব যশোরের আমেনা ক্লিনিকে চাকরি করত। সকালে সদর উপজেলার নওয়াদাগা গ্রামে দুলাভাই আব্দুর রহিমের বাড়ি বেড়াতে আসে। সারাদিন সেখানে থাকার পর বিকেলে সে ক্লিনিকের উদ্দেশে রওনা হয়। সন্ধ্যায় দুই ব্যক্তি তাকে গুরুতর অবস্থায় জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের বারান্দায় ফেলে রেখে চলে যায়।

নিহত রাকিবের পকেটে জন্মনিবন্ধন সনদ ও স্কুলের পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। ওই পরিচয়পত্র থেকে জানা গেছে, সে অভয়নগর উপজেলার বাগুটিয়া বুনো রামনগর গ্রামের ফিরোজ মোল্যার ছেলে ও একই উপজেলার হাজী আবু মোকাররম ফজলুল বারী কারিগরি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।

রাকিবের পরিবারকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। রাকিবকে কারা কোথায়, কী কারণে খুন করেছে পুলিশ তা এখনো জানতে পারেনি।

You Might Also Like