হোম » ম্যাক্সওয়েলের সেঞ্চুরি, ম্যাক্সওয়েলের কীর্তি

ম্যাক্সওয়েলের সেঞ্চুরি, ম্যাক্সওয়েলের কীর্তি

ঢাকা অফিস- শুক্রবার, মার্চ ১৭, ২০১৭

চার বছর আগে ভারতেই হয়েছিল টেস্ট অভিষেক। ক্যারিয়ারের প্রথম তিন টেস্টের ছয় ইনিংস মিলিয়ে রান মোটে ৮০। সবশেষ ম্যাচটি ২০১৪ সালের অক্টোবরে। বলা হচ্ছিল গ্লেন ম্যাক্সওয়েল টেস্ট ব্যাটিংটা ঠিক পারেন না। প্রত্যাবর্তনের টেস্টে রাঁচিতে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করেই সব জবাব দিলেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার।

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে সেঞ্চুরি করছিলেন আগেই। এবার পেয়ে গেলেন ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিও। ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করা মাত্র দ্বিতীয় অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান। সব মিলিয়ে ১৩তম। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে তিন ফরম্যাটে সেঞ্চুরি আছে আর কেবল শেন ওয়াটসনের।

সেঞ্চুরিটি কিন্তু ম্যাক্সওয়েলের সহজাত আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে আসেনি। পরিস্থিতির দাবি মিটিয়ে খেলেছেন পরিমিত আর পরিণত এক ইনিংস। কাল প্রথম দিনে যখন উইকেটে এলেন, ১৪০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপদে অস্ট্রেলিয়া। সেখান থেকেই সফরকারীদের দারুণভাবে টেনে তুলেছেন অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও ম্যাক্সওয়েল।

স্মিথ সেঞ্চুরি করেছিলেন প্রথম দিনেই। দিন শেষে ৮৪ রানে অপরাজিত থাকা ম্যাক্সওয়েল আজ দ্বিতীয় দিনে সেটিকে তিন অঙ্কে রূপ দিয়েছেন। ৫৬ বলে মেরেছিলেন প্রথম বাউন্ডারি। উমেশ যাদবকে চার হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন ১৮০ বলে। উমেশের করা দিনের প্রথম বলেই অবশ্য ম্যাক্সওয়েলের ব্যাট ভেঙেছিল। ১৩৭ কিলোমিটার গতির বলে ডিফেন্স করেছিলেন ম্যাক্সওয়েল। ব্যাট দুই ভাগ হয়ে অর্ধেক ছিল তার হাতে, বাকি অর্ধেক পিচের ওপরে!

সেঞ্চুরির পরই রবীন্দ্র জাদেজার বলে ঋদ্ধিমান সাহার হাতে স্টাম্পড হয়ে ফেরেন ম্যাক্সওয়েল। ১৮৫ বলে ৯ চার ও ২ ছক্কায় খেলেন ১০৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। স্মিথের সঙ্গে তার পঞ্চম উইকেট জুটি ১৯১ রানের। ম্যাক্সওয়েল ফিরলেও এই প্রতিবেদন লেখার সময় ১৪৪ রানে ব্যাট করছিলেন স্মিথ। অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ছাড়িয়েছে সাড়ে তিনশ।

তিন ফরম্যাটেই ম্যাক্সওয়েলের সেঞ্চুরি হলো একটি করে। গত বছরের সেপ্টেম্বরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে খেলেছিলেন অপরাজিত ১৪৫ রানের ইনিংস। ২০১৫ বিশ্বকাপে সিডনিতে সেঞ্চুরি করেছিলেন ৫১ বলে। যেটি বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানের দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ডও।

তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি আছে যাদের
তিলকরত্নে দিলশান (শ্রীলঙ্কা)
ফাফ ডু প্লেসি (দ. আফ্রিকা)
ক্রিস গেইল (উইন্ডিজ)
মার্টিন গাপটিল (নিউজিল্যান্ড)
মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা)
তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ)
ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (নিউজিল্যান্ড)
লোকেশ রাহুল (ভারত)
সুরেশ রায়না (ভারত)
রোহিত শর্মা (ভারত)
আহমেদ শেহজাদ (পাকিস্তান)
শেন ওয়াটসন (অস্ট্রেলিয়া)
গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অস্ট্রেলিয়া)।