মোদির নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন : এফআইআর দায়ের

বিজেপির প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে নির্বাচন চলাকালীন আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার ২ বছরের জেল হতে পারে।

বুধবার গুজরাটের আহমেদাবাদের একটি কেন্দ্রে ভোটদান শেষে দলীয় প্রতীক পদ্মসহ মোবাইল ফোনে একটি সেলফি তুলেন মোদি। দেশটির বেশ কয়েকটি টেলিভিশন চ্যানেল ওই দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার করে। এর মাধ্যমে মোদি ভোট চলাকালীন ভোটারদের প্ররোচিত করেছেন বলে অভিযোগ আনা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন ওই ভিডিও ফুটেজ দেখে আহমেদাবাদ ক্রাইম ব্রাঞ্চকে মোদি ও টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর বিরুদ্ধে এফআইআর (ফার্স্ট ইনফরমেশন রিপোর্ট) দায়েরের নির্দেশ দেন। নির্দেশানুযায়ী ক্রাইম ব্রাঞ্চ মোদির বিরুদ্ধে একটি এফআইআর দায়ের করে। এছাড়া ভোট চলাকালীন এ ধরনের দৃশ্য প্রচার করা নিষিদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও যেসব টেলিভিশন ওই দৃশ্য প্রচার করেছে তাদের বিরুদ্ধেও একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে, নিজের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করে মোদি বলেন, ‘এই প্রথম আমার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হলো। এ দিনটি আমার সারাজীবন মনে থাকবে। কেউ ছুরি বা বন্দুক দেখালে তার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। কিন্তু আপনারা কি জানেন, আমার বিরুদ্ধে কেন এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। কারণ আমি জনগণকে পদ্ম দেখিয়েছি।’

এ ঘটনার পরপরই এক সংবাদ সম্মেলনে বিজেপির এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘আমরা নির্বাচন কমিশনকে সম্মান দেখিয়ে বলছি মোদি আইন ভঙ্গ করেননি।’

এদিকে, মোদির বিরুদ্ধে এফআইআরের সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছে কংগ্রেস। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া ও এনডিটিভি

You Might Also Like