মোদির ডাকে সাড়া দিলেন সোনিয়া-রাহুল

বিরোধী দলে থেকে সরকারি প্রকল্পে শামিল হলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও দলের সহসভাপতি রাহুল গান্ধী।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাতে গত মাসে সূচনা হওয়া ‘সংসদ আদর্শ গ্রাম যোজনা’ এর আওতায় নিজ নিজ সংসদীয় কেন্দ্রের একটি করে গ্রাম দত্তক নিয়েছেন তারা। লক্ষ্য হলো গ্রাম দু’টিকে মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা।

কংগ্রেসের বরাত দিয়ে ভারতীয় পত্রিকাগুলো জানিয়েছে, সোনিয়া বেছে নিয়েছেন তার কেন্দ্র রায়বেরেলির জগৎপুর ব্লকের উদয়া গ্রাম আর নিয়েছেন আমেথির জগদীশপুর ব্লকের দিহ গ্রাম।

দিহ গ্রাম সংলগ্ন এলাকাটিতে শিল্পায়নের ছোঁয়া লেগেছিল রাহুলের বাবা প্রয়াত রাজীব গান্ধী প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় আর উদয়া গ্রামটি রানা বেনি মাধবের জন্মস্থান হওয়ার সুবাদে তার ঐতিহাসিক গুরুত্ব রয়েছে। বেনি মাধবকে ১৮৫৭ সালে প্রথম ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম নেতা বলা হয়।

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণের প্রতিশ্রুতি মতো গত মাসে প্রয়াত জয়প্রকাশ নারায়ণের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গ্রাম যোজনা প্রকল্পের সূচনা করে মোদি ঘোষণা দেন, ২০১৯ সালের মধ্যে দেশের প্রত্যেক এমপি তিনটি করে গ্রাম মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে পারলে সারা দেশে প্রায় আড়াই হাজার গ্রাম ব্যাপক উন্নতির মুখ দেখবে। এর স্বাভাবিক ফলস্বরূপ গোটা দেশের চেহারাই বদলে যাবে।

কংগ্রেস সূত্রে অবশ্য বলা হচ্ছে, সোনিয়া-রাহুল দুটি গ্রাম দত্তক নিয়েছেন মানেই এটা নয় যে মোদির প্রকল্প অনুমোদন করছেন তারা।

এদিকে কেন্দ্র সম্প্রতি ওই প্রকল্পের আওতায় গ্রাম দত্তক নেয়ার সময়সীমা বাড়িয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী মোদি স্বয়ং তার বারানসী সংসদীয় কেন্দ্রের অন্তর্ভুক্ত জয়াপুর নামে একটি গ্রাম দত্তক নিয়েছেন। এতে শামিল হয়েছে ক্রিকেট কিংবদন্তী শচীন টেন্ডুলকারও।

You Might Also Like