মেসি-নেইমার-সুয়ারেজে উড়ে গেল ভিয়ারিয়াল

চিরচেনা ক্যাম্প ন্যু। ঘরের মাঠে এক সঙ্গেই জ্বলে উঠলেন বার্সেলোনা আক্রমনভাগের সেরা তিন তারকা লিওনেল মেসি, নেইমার ও লুইজ সুয়ারেজ। আর এমএসএন ত্রয়ীর দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভিয়ারিয়ালকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে কাতালান ক্লাবটি।

বার্সার হয়ে নিয়মিতই গোল পাচ্ছিলেন মেসি ও সুয়ারেজ। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে তাদের সঙ্গে আগের ম্যাচেই মাঠে ফিরেছিলেন নেইমার। তবে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে গোল করে নিজেকে জানান দিলেন ব্রাজিলিয়ান এ সেনসেশন।

নিজেদের মাঠে বার্সার জয়ে জোড়া গোল করেন দলের সেরা তারকা মেসি। সঙ্গে একটি করে গোল পান সুয়ারেজ ও নেইমার। চলতি মৌসুমে শত গোলের মাইলফলক ছাড়িয়ে গেলেন ‘এমএসএন’ ত্রয়ী। গতকাল রাতে বড় জয়ে রিয়ালের সঙ্গে শিরোপার লড়াইয়ে থাকল ব্লুগ্রেনারা।
নিজেদের আঙ্গিনায় ম্যাচের ২১ মিনিটে প্রথমে এগিয়ে যায় বার্সা। লুইস সুয়ারেজ বল পেয়ে তা পাঠান মেসির কাছে। আর মেসির সহায়তায় কাতালান ক্লাবটিকে এগিয়ে দেন নেইমার। তবে ম্যাচের ৩২ মিনিটে ক্যাম্প ন্যু এর দর্শকদের স্তব্দ করে গোলটি শোধ করে দেন ভিয়ারিয়ালের সেদরিক বাকাম্বু।বিশ্রামে যাওয়ার আগেই স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা। প্রথমার্ধের ইনজুরি সময়ে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন মেসি।

বিশ্রাম শেষে ম্যাচের ৬৯ মিনিটে বার্সাকে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে দেন লুইস সুয়ারেজ। সার্জি রবের্তোর কাছ থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের ভিয়ারিয়ালের জাল কাঁপান উরুগুইয়ান এ তারকা। আর ৮২ মিনিটে প্রতিপক্ষের জালে শেষ গোলটি করেন মেসি। এ সময় পেনাল্টি পায় বার্সা। সুয়ারেজের শট জাউমে কস্তার হাতে লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সেটি কাজে লাগিয়ে সফল লক্ষ্যভেদে বার্সাকে ৪-১ গোলে এগিয়ে দেন মেসি। শেষপর্যন্ত এ ব্যবধানেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লুইস এনরিকের দল।

এই জয়ে ৩৬ ম্যাচে লা লিগা টেবিলের শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট ৮৪। রাতে গ্রানাডার বিপক্ষে জয় পাওয়ায় রিয়াল মাদ্রিদ ৩৫ ম্যাচে সমান ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

You Might Also Like