মেয়ের সামনেই মাকে গণধর্ষণের অভিযোগ

বিজেপি সমর্থিত পরিবারের এক গৃহবধূকে তার মেয়ের সামনেই গণধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় কয়েকজন তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেছেন নির্যাতিতা মহিলা।

পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার ইটাহারের বরোট গ্রামে অক্টোবরের ১৮ তারিখে এ ঘটনা ঘটে। তবে প্রাণনাশের হুমকিতে ভয় পেয়ে ওই মহিলা এতদিন পরে পুলিশে অভিযোগ করেন বলে জানা গেছে। আজ শুক্রবার নির্যাতিতা মহিলা ইটাহার থানায় তৃণমূল কংগ্রেসের ওই নেতাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার রাতে ওই মহিলার বাড়িতে এলাকার তৃণমূল কংগ্রেস নেতা হিসেবে পরিচিত ১০-১২ জন দুষ্কৃতকারী হামলা চালায়। পরিবারের লোকজনকে মারধরের পাশাপাশি তাদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলেও অভিযোগে জানানো হয়।

পুলিশকে ওই মহিলা জানিয়েছেন, ওই দুষ্কৃতকারীরা ঘরে ঢুকে তার ১০ বছর বয়সী মেয়ের সামনেই তাকে গণধর্ষণ করে। মেয়েটিরও শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ ওই নির্যাতিতার। খবর পেয়ে ইটাহারের প্রাক্তন বিধায়ক শ্রীকুমার মুখোপাধ্যায় তাদের বাড়িতে যান৷ তিনিই ওই মহিলাকে পুলিশে অভিযোগ জানাতে বলেন। শ্রীকুমার মুখোপাধ্যায়ের কথা মতো নির্যাতিতা মহিলা স্থানীয় থানায় অভিযুক্তদের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন৷

ইটাহারের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক ও জেলা সভাপতি অমল আচার্য জানিয়েছেন, অভিযোগটি গুরুতর। আইন আইনের পথেই চলবে। কোনো রাজনৈতিক রং না দেখে পুলিশকে তদন্ত করতে অনুরোধ করা হবে বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে বিজেপির জেলা সভাপতি শুভ্র রায়চৌধুরী অভিযোগ করেছেন, সারা রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা চালাচ্ছে৷ ইটাহারের ঘটনা তাতে আর একটি সংযোজন। অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার করার দাবি জানান তিনি।

You Might Also Like