হোম » মুকুট হারিয়ে মেসির ওপর হতাশ ছিলেন বাতিস্তুতা

মুকুট হারিয়ে মেসির ওপর হতাশ ছিলেন বাতিস্তুতা

ঢাকা অফিস- Monday, November 13th, 2017

দীর্ঘদিন ধরে আর্জেন্টিনার হয়ে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডটা ছিল তার দখলে। গত বছর গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন লিওনেল মেসি। আর মুকুট হাতছাড়া হওয়ায় বার্সেলোনা তারকার ওপর হতাশ ছিলেন বাতিস্তুতা। তবে মেসির মতো ‘ভিনগ্রহের’ ফুটবলার তার রেকর্ড ভাঙায় খুশিও হয়েছিলেন বাতিগোল।

১৯৯১ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত আর্জেন্টিনার হয়ে ৭৭ ম্যাচে ৫৪ গোল করেছিলেন বাতিস্তুতা। গত বছর শতবর্ষী কোপা আমেরিকায় তাকে ছাড়িয়ে যান মেসি। ৩০ বছর বয়সি ফরোয়ার্ডের গোল এখন ৬০টি। বাতিস্তুতা আছেন দ্বিতীয় স্থানে।

গত শনিবার মস্কোতে প্রীতি ম্যাচে রাশিয়ার বিপক্ষে আর্জেন্টিনার জয়সূচক একমাত্র গোলটি করে তিনে থাকা হার্নান ক্রেসপোকে ছুঁয়েছেন সার্জিও আগুয়েরো। ম্যানচেস্টার সিটির এই স্ট্রাইকার ছাড়িয়ে গেছেন দিয়েগো ম্যারাডোনার ৩৪ গোলকে। ক্রেসপো ও আগুয়েরোর গোল ৩৫টি করে।
বাতিস্তুতা বললেন, তার রেকর্ড ভাঙায় মেসির ওপর কিছুটা হতাশ হয়েছিলেন তিনি। আর্জেন্টিনার টেলিভিশন চ্যানেল ‘টেলিফি’কে বাতিস্তুতা বলেছেন, ‘রেকর্ডটি মেসি নিয়ে নেওয়ায় সেটা আমাকে হতাশ করেছিল কি না? হ্যাঁ, একটু।’

প্রাক্তন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড আরো বলেন, ‘এটা এমন একটা খেতাব, যা আমি ধরে রেখেছিলাম। এটা কোনো ছোট ব্যাপার নয়। আপনি বিশ্বের যেখানেই যান, মানুষ বলবে, “সে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা”।’
তার দ্বিগুণ গোল মেসি করবেন বলেও বিশ্বাস করেন বাতিস্তুতা, ‘আমার মনে হয়, আমি ৫৪ বা এমন সংখ্যক গোল পেয়েছি। মেসির আরো বেশি আছে এবং আমি যা করেছি তার প্রায় দ্বিগুণ পাবে সে। আমি ভিনগ্রহের ফুটবলারের পর দ্বিতীয় স্থানে আছি।’

আরেক দিক থেকে অবশ্য মেসির চেয়ে এগিয়েই আছেন বাতিস্তুতা। তিনি দুটি কোপা আমেরিকা ও একটি ফিফা কনফেডারেশন কাপ জিতেছেন। সেখানে মেসি এখন পর্যন্ত বড় কোনো আন্তর্জাতিক শিরোপা জিততে পারেননি।

তথ্যসূত্র : মেইল অনলাইন।