মাত্র ৫ ফুট!

যুক্তরাষ্ট্রের একটি গোয়েন্দা বিমানের মাত্র পাঁচ ফুট কাছ দিয়ে সাঁই করে উড়ে গেল রাশিয়ার যুদ্ধবিমান। অল্পের জন্য দুর্ঘটনা ঘটেনি।

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সোমবার বাল্টিক সাগরের ওপরে রুশ ও মার্কিন বিমান এই ভয়ংকর পরিস্থিতির মুখে পড়ে। কর্মকর্তারা বলেছেন, দ্রুত গতি ও বিমান নিয়ন্ত্রণে অদক্ষতার কারণে বিপজ্জনক এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের এ ব্যাখ্যার বিরোধিতা করে রাশিয়া বলেছে, রুশ বিমানকে লক্ষ্য করে ‘উসকানিমূলক’ গতিতে এগোয় মার্কিন বিমান।

সোমবার রাশিয়া হুমকি দেয়, সিরিয়ার আকাশে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান দেখলেই গুলি করা হবে। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে, তাদের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের মিত্র যোদ্ধাদের টার্গেট করায় সিরিয়ার যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করা হয়েছে। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে পাল্টাপাল্টি হুমকি ও হুঁশিয়ারির ঘটনা ঘটছে।

রাশিয়ার হুমকির দিনেই বাল্টিক সাগরে মার্কিন গোয়েন্দা বিমানের নাকের ডগা দিয়ে উড়ে গেল তাদের যুদ্ধবিমান। ফলে দুই দেশের মধ্যে যে সামরিক উত্তেজনা বিরাজ করছে, তা বোঝাই যায়।

মঙ্গলবার ইরানের তৈরি একটি অস্ত্রবাহী ড্রোন ভূপাতিত করে যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া ও ইরান সিরিয়া সরকারের পক্ষে থাকায় এ ঘটনাও রাশিয়াকে ক্ষুব্ধ করেছে।

You Might Also Like