মরক্কোর কিশোরের স্মার্ট মাস্ক ও গগলস উদ্ভাবন

লকডাউনের ছুটিতে করোনা প্রতিরোধক ফেস মাস্ক ও গগলস তৈরি করেছে মরক্কোর মুহাম্মাদ বিলাল হামুতি নামে এক কিশোর।

১১ বছর বয়সী খুদে আবিষ্কারক মুহাম্মদ বিলাল হামুতি বেশির ভাগ সময় বিভিন্ন ইলেকট্রিক প্রকল্প উদ্ভাবন ও তা বাস্তবায়নের পেছনে ব্যয় করে। সে বলে, ‘আমি ইলেকট্রনিকস ও রোবোটিকস সম্পর্কে খুবই আগ্রহী। সব সময় আমার স্বপ্ন আমি ব্যবহারযোগ্য কিছু উদ্ভাবন করব। আমি খুশি যে আমি নিজে কিছু উদ্ভাবন করতে পেরেছি।’

সে আরো বলে, ‘আমি যখন সামাজিক দূরত্ব সম্পর্কে জানতে পারলাম, তখন একটি গগলস নিয়ে ভাবতে শুরু করি এবং তা তৈরিতে সক্ষম হয়েছি।’ নিজের উদ্ভাবন সম্পর্কে হামুতি বলে, ‘যদি গগলস পরিধানকারী থেকে অন্যের দূরত্ব এক মিটারের চেয়ে কম হয়, তখন তাতে সতর্ক সংকেত বাজতে শুরু করবে।’

হামুতির উদ্ভাবিত মাস্কে বিশেষ সেন্সর বসানো হয়েছে। ফলে কেউ যদি মাস্ক পরিধানকারীর এক থেকে দুই মিটারের মধ্যে চলে আসে তবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নাক ও মুখ ঢেকে যাবে। ঘরের বাইরে বিশেষত উষ্ণ আবহাওয়ায় যারা কাজ করে, তাদের কথা চিন্তা করে এই মাস্ক তৈরি করা হয়েছে বলে মন্তব্য করে সে।

কোভিড-১৯ বিস্তাররোধের আশা প্রকাশ করে কিশোর হামুতি বলেন, ‘করোনারোধে এটি আমার প্রাথমিক নমুনার আবিষ্কার। আমি আশা করব, কোনো বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান আরো গবেষণা করে এটিকে আরো উন্নত করবে।’

সূত্র : মিডলইস্ট মনিটর