ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবিতে নিহত ২৫, উদ্ধার ৪০০

ভূমধ্যসাগরের লিবিয়া উপকূলে অভিবাসীবাহী উল্টে যাওয়া নৌকাটির ৪০০ যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়াদের মধ্যে ২৫জনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে উদ্ধারকারী দল। নিখোঁজ রয়েছে আরও অনেকে।
স্থানীয় সময় বুধবার (০৫ আগস্ট) দুর্ঘটনায় কবলিত হওয়ার পর ইতালিয়ান কোস্ট গার্ড এবং জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর-এর উদ্ধারকারী দল তাদের উদ্ধার করে।
ইউএনএইচসিআর-এর মুখপাত্র ফেদেরিকো ফোসি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, উল্টে যাওয়ার পর ইস্পাতের তৈরি নৌকাটির কাঠামো থেকে উদ্ধারকারী জাহাজটি ১০০ জনকে উপরে তুলে আনে।
ষরনরধসংবাদ মাধ্যম জানায়, ঝুঁকিপূর্ণভাবে ইউরোপে পাড়ি জমাতে প্রায় ৭০০ অভিবাসন প্রত্যাশীকে নিয়ে লিবিয়া উপকূল থেকে যাত্রা করে নৌকাটি। পরে লিবিয়া উপকূল থেকে প্রায় ১৫ মাইল দূরে বিশাল আকৃতির নৌকাটি খারাপ আবহাওয়ার কবলে পড়ে ডুবে যায়।
খবর পেয়ে দ্রুত উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে ইতালির কোস্টগার্ড ও জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। চারটি নৌকা ও তিনটি হেলিকপ্টারের মাধ্যমে এ উদ্ধার কাজ চলানো হচ্ছে। তবে মৃতের আরও বাড়তে পারে।
সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, নৌকাটিতে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অতিরিক্ত আরোহী ছিল।
আইরিশ নৌ বাহিনীর কমান্ডার বলেন, ‘জাহাজটি আমাদের চোখের সামনেই জাহাজটি ডুবে যায়। এটা আম‍াদের সবচেয়ে খারাপ ও ভয়ের উপলব্ধি ছিল।
মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের মানুষ উন্নত জীবন-যাপনের আশায় বিপদসংকুল ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যাওয়ার চেষ্টা করে।
এরমধ্যে চলতি বছরেই ২ হাজারের বেশি অভিবাসন প্রত্যাশীর প্রাণহানি ঘটেছে বলে জানান আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএমও)। সংস্থাটি বলছে, গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৩হাজার ২৭৯।

You Might Also Like