ভিয়েতনামে কর্মহীন মানুষের জন্য চালের এটিএম বুথ!

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় লকডাউনের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষকে সাহায্যার্থে ব্যতিক্রম এক উদ্যোগ নিয়েছেন ভিয়েতনামের এক ব্যক্তি। দেশটিতে স্থাপন করা হয়েছে চালের এটিএম বুথ! এই বুথ থেকে কর্মহীনদের বিনামূল্যে চাল দেয়া হচ্ছে।

বিশ্ব সংকটে মানবসেবার এই মহৎ উদ্যোগটি নিয়েছেন হোয়াং তুয়ান আন। তিনি হো চি মিন সিটির একজন উদ্যোক্তা। তার এই অনন্য উদ্যোগে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন দেশটির বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও দাতারা।

করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় গত ৩১ মার্চ থেকে ভিয়েতনামে লকডাউন চলছে। এ কারণে ভাসমান বিক্রেতা ও গৃহকর্মীসহ হাজার হাজার দিনমজুর কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। তাদের খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। তাদের এই দুঃসময়ে এগিয়ে এলেন হোয়াং তুয়ান। তিনি হো চি মিন সিটির একটি কলেজের সামনে প্রথমে চালের এটিএম স্থাপন করেন। এটি ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকছে।

হোয়াংয়ের এই উদ্যোগে এগিয়ে আসেন দেশটির উদ্যোক্তারা। পরে চালের এটিএম মেশিন স্থাপন করা হয় রাজধানী হ্যানয়, হোয়েই ও ডানাং সিটিতেও।

এসব বুথ থেকে প্রতিদিন প্রত্যেক কর্মহীনকে বিনামূল্যে দেড় কেজি করে চাল দেয়া হচ্ছে, যা চারজনের একটি পরিবারের জন্য যথেষ্ট।
জানা গেছে, এটিএম মেশিন থেকে চাল পেতে ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়াতে হয়। আর চাল সংগ্রহের আগে প্রত্যেকের হাত স্যানিটাইজার বা সাবান দিয়ে পরিষ্কার করা বাধ্যতামূলক। এটিএমের পাশেই রয়েছে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা।

হ্যানয়, হোয়েই ও ডানাংয়ের এটিএমের পাশাপাশি রাজধানীতে বিশাল একটি ওয়াটার ট্যাংকে প্রচুর চাল মজুদ রাখা হয়েছে।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কর্মহীন কেউ সাহায্য চাইলে এখান থেকে ব্যাগে ভরে চাল নিয়ে যেতে পারেন।

প্রসঙ্গত চালের এটিএম মেশিনের উদ্যোক্তা হোয়াং তুয়ান আন এর আগে করোনা চিকিৎসায় হাসপাতালগুলোকে সহায়তা করেন। হাসপাতালগুলোকে তিনি স্মার্ট ডোরবেল দেন।

তথ্যসূত্র: রয়টার্স

You Might Also Like