ভিডিওর ফাঁদে ফেলে দেহ ব্যবসা, গ্রেফতার ৪

প্রথমে যে কোনো প্রকারে গোপনে অশ্লীল ভিডিও করা, এর পর ভয় দেখিয়ে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করা-এমন ফাঁদে ফেলে তরুণীদের সর্বনাশ করছে একশ্রেনির বখে যাওয়া যুবক। মুন্সীগঞ্জ শহরের হাটলক্ষীগঞ্জ এলাকা থেকে তিন তরুণীসহ এমনই এক যুবককে বুধবার সকালে গ্রেফতার করেছে সদর থানা-পুলিশ।

গত মে মাসে হাটলক্ষীগঞ্জ এলাকার দুলালী বেগম গোপনে অশ্লীল ভিডিও চক্রের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় একটি মামলা রুজু করেন। এই মামলায় তার ছোট বোন মৌসুমী আক্তার (১৭) গোপন ভিডিওর শিকার বলে উল্লেখ করেন। অভিযোগ করা হয়, ৪ জনের একটি চক্র তার বোনকে ফাঁদে ফেলেছে এবং এমন আরো অনেকেরই সর্বনাশ ঘটাচ্ছে। জানিয়েছেন, এ মামলারই তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সুমনা বেগম।

আজ তাদের গ্রেফতার করতে সমর্থ হয় পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, ইকরাম হোসেন (২৪), আমেনা (১৮), কনক (১৯) ও রজনী আক্তার (১৭)। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সদর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই এএইচএম সালাউদ্দিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদেরকে শহরের হাটলক্ষীগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বেলা ১টা ৪০ মিনিটের সময় আসামীদের এএসপি (সদর সার্কেল) এমদাদুল ইসলাম সদর থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করছেন।

You Might Also Like