ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক দুই দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সঙ্গে ভারতের মধ্য প্রদেশের লেজিসলেটিভ এসেম্বলির স্পিকার সিতাশরণ শর্মার সাক্ষাৎকালে উভয় নেতা ওই মন্তব্য করেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ২০১৭ সালে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা পূরণে দক্ষিণ এশিয়া স্পিকার সামিটে অংশগ্রহণের জন্য বর্তমানে ভারতের ইন্দোরে অবস্থান করছেন।

শনিবার জাতীয় সংসদ সচিবালয় থেকে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

সাক্ষাৎকালে তারা ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) এসেম্বলির বিষয়ে মতবিনিময় করেন। উভয় নেতা বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার বর্তমান বন্ধুত্বপূর্ণ সুসম্পর্কের বিষয় স্মরণ করেন।

এ সময় মধ্য প্রদেশের স্পিকার বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে এ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক দুদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এ সম্পর্ক উন্নয়ন উভয় দেশকে আরো এগিয়ে আসতে হবে।

অন্যদিকে স্পিকার ড. শিরীন এ বিষয়ে একমত পোষণ করে বলেন, আগামী ১-৫ এপ্রিল ২০১৭ তারিখ ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য আইপিইউ’র ১৩৬তম এসেম্বলিতে বিশ্বের ১৭১ দেশের প্রায় ১৩ শতাধিক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করবেন। এসেম্বলির সার্বিক প্রস্তুতির কাজ এগিয়ে চলেছে। এজন্য ভারত থেকেও একটি প্রতিনিধি দল ওই এসেম্বলিতে অংশগ্রহণ করার জন‌্য আহ্বান জানান।

You Might Also Like