ভারতে মুসলিমবিরোধী আইনের প্রতিবাদে মমতার কলম গর্জে উঠল

মোদি নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের সদ্যপ্রণীত বিতর্কিত ও মুসলিমবিরোধী নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ক্ষোভে উত্তাল ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল। আসাম, ত্রিপুরা, পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, মুম্বাই, লখনউ, কেরালা, মধ্যপ্রদেশ, বেঙ্গালুরু, মেঙ্গালুরু… সর্বত্র চলছে নতুন নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ।

 

একদিকে যখন প্রতিবাদের আগুন জ্বলছে, তখন গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন পশ্চিববঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার একের পর এক প্রতিবাদ সভা করে চলেছেন তিনি।

 

মমতার সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। আন্দোলনে যুক্ত হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবীদের একাংশও। মমতা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবে না। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনকেও মানবেন না তিনি। মমতা জোর গলায় বলেন, পশ্চিমবঙ্গের মানুষদের কোনো চিন্তা নেই।

 

মুসলিমবিরোধী আইন নিয়ে শুধু রাজপথে আন্দোলনেই থেমে থাকলেন না মমতা। এবার তিনি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে হাতে তুলে নিলেন কলম। এর আগেও বিভিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে কবিতা লিখেছেন মমতা। প্রতিবাদই হয়ে ওঠে তার কবিতার ভাষা। বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় তার লেখা ‘নাগরিক’ নামের একটি কবিতা।

 

ওই কবিতায় মমতা লেখন, “আমরা সবাই/ নাগরিক।।/ গণতন্ত্রে/ নাগরিক।।/ চলার পথে/ নাগরিক।।/ সংবিধানে/ নাগরিক।।/ পথে পথে/ নাগরিক।।/ চলছে যারা/ নাগরিক।।/ বলছে যারা/ নাগরিক।।/ লড়ছে যারা/ নাগরিক।।/ জিতবে কারা?/ নাগরিক।।”

 

এর আগে বাবরি মসজিদ মামলার রায় ঘোষণার পর ‘না-বলা’ নামের একটি কবিতা লিখেছিলেন মমতা। সেই কবিতাও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবার তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা করলেন কবিতার মধ্যে দিয়ে। কবিতাটি ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

You Might Also Like