ভারতে প্রথমবার একজন ‘হিজরা’ সরকারি কলেজের প্রিন্সিপাল

মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই অর্জনকে ভারতের তৃতীয় লিঙ্গভুক্তরা অনেকেই স্বাগত জানাচ্ছেন। ভারতে এই প্রথম একজন হিজরা বা তৃতীয় লিঙ্গের কোনও ব্যক্তি একটি সরকারি কলেজের প্রিন্সিপালের দায়িত্ব নিতে চলেছেন।

এই সম্মান অর্জন করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে ভারতের তৃতীয় লিঙ্গভুক্ত কেউই আগে ভারতে এরকম কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ পদে আসীন হননি। কিন্তু সেই ঐতিহ্য ভেঙে মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী ৯ জুন পশ্চিমবঙ্গের কৃষ্ণনগর গভর্নমেন্ট কলেজের প্রিন্সিপালের দায়িত্ব নেবেন।

মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য বহুদিন ধরেই ওই রাজ্যের ঝাড়গ্রামে আর একটি সরকারি কলেজে অধ্যাপনা করছেন।

রাজ্যের তৃতীয় লিঙ্গভুক্তদের অধিকার অর্জনের আন্দোলনেও তিনি একজন পরিচিত মুখ, বিভিন্ন সময়ে তাঁকে সেই আন্দোলনের নেতৃস্থানীয় ভূমিকায় দেখা গেছে।

সম্প্রতি কৃষ্ণনগর গভর্নমেন্ট কলেজের প্রিন্সিপালের পদটি খালি হলে মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় সেই পদের জন্য আবেদন করেন, এবং তারপর নিয়মমাফিক নির্বাচন প্রক্রিয়ার শেষে তিনি ওই চাকরির জন্য মনোনীত হন।

মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য নিজে বলেছেন, এই পদে নিযুক্ত হলে তিনিই হবেন সারা দেশে কোনও কলেজের প্রথম তৃতীয় লিঙ্গভুক্ত প্রিন্সিপাল চাকরিটা নেওয়ার আগে এমন কোনও ভাবনা তার মাথায় আদৌ কাজ করেনি।

বরং তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘কৃষ্ণনগরে বদলি হলে নৈহাটিতে আমার ৯২ বছর বয়সী অসুস্থ বাবার দেখাশুনো করা সহজ হবে। চাকরিটা নেওয়ার পেছনে সেটাই ছিল আমার প্রধান উদ্দেশ্য!’

তবে মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই অর্জনকে ভারতের তৃতীয় লিঙ্গভুক্তরা অনেকেই স্বাগত জানাচ্ছেন।

এই উদাহরণ তাদের আরও অনেকের জন্য নতুন নতুন সুযোগ উন্মুক্ত করতে পারে বলেও তারা আশা করছেন।

You Might Also Like