হোম » ভারতের মঙ্গল অভিযানে মারাত্মক ভুলের দাবি করলেন নাসার বিজ্ঞানী

ভারতের মঙ্গল অভিযানে মারাত্মক ভুলের দাবি করলেন নাসার বিজ্ঞানী

ঢাকা অফিস- Thursday, December 15th, 2016

ভারতের মঙ্গল অভিযানে মারাত্মক ভুল হয়েছে এবং এ অভিযানের মাধ্যমে গ্রহটির বায়ুমণ্ডলে মিথেন সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব হবে না বলে দাবি করছেন মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার বিজ্ঞানী মাইকেল মুমমা ।

মঙ্গল গ্রহের কক্ষপথ প্রদক্ষিণকারী ভারতের কৃত্রিম উপগ্রহ মঙ্গলায়ন লাল গ্রহটির বায়ুমণ্ডলের মিথেন সংক্রান্ত কোনো তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে না। কৃত্রিম উপগ্রহটির সেন্সরে ভুল থাকায় এটি সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন মাইকেল মুমমা ।

অবলোহিত রশ্মি বা ইনফ্রা রে দুরবিনের সাহায্যে মঙ্গলের বায়ুমণ্ডল পর্যবেক্ষণ করে মিথেনের উপস্থিতি নির্ণয় করার সঙ্গে জড়িত নাসার বিজ্ঞানী দলের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন মাইকেল মুমমা। তিনি বলেন, ভাল যন্ত্র তৈরির জ্ঞান ভারতীয় প্রকৌশলীদের আছে। কিন্তু মঙ্গলের বায়ুমণ্ডলে মিথেনের উপস্থিতি বের করতে হলে ঠিক কি করতে হবে সে বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেয়ার মতো তাদের কেউ ছিল না। একে সত্যিই দুর্ভাগ্যজনক বলে অভিহিত করেন তিনি।

অবশ্য, মিথেনের উপস্থিতি বের করতে না পারলেও কৃত্রিম উপগ্রহটির সেন্সরকে মঙ্গল থেকে সৌর রশ্মি প্রতিফলন নির্ণয়ের মতো অন্যান্য বৈজ্ঞানিক কাজে ব্যবহার করা সম্ভব হবে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলায়ন সফলভাবে নিক্ষেপের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (আইএসআরও) তৎকালীন প্রধান কে রাধাকৃষ্ণন বলেছিলেন, মঙ্গলের বুকে মিথেন আছে কি না সেটা সম্ভবত এবারে শতভাগ নিশ্চিত ভাবে জানা যাবে।

কিন্তু দু’বছর আগে ভারতের কৃত্রিম উপগ্রহটি মঙ্গলে পৌঁছালেও এ পর্যন্ত মঙ্গলায়নের পাঠানো মিথেন সংক্রান্ত কোনো তথ্য আইএসআরও প্রকাশ করে নি।

অবশ্য, রুশ বার্তা সংস্থা স্পুতনিকে পক্ষ থেকে মঙ্গলায়নের মিথেন নির্ণয়ের ব্যর্থতা সংক্রান্ত প্রশ্ন করা হলে আইএসআরও মুখপাত্র দেবীপ্রাসাদ কারনিক তা এড়িয়ে যান।