হোম » ভারতের ইতিহাস ও টিপু সুলতানের ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক হোক: বিজেপি মহাসচিব বিজয়বর্গীয়ও

ভারতের ইতিহাস ও টিপু সুলতানের ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক হোক: বিজেপি মহাসচিব বিজয়বর্গীয়ও

ঢাকা অফিস- Sunday, October 22nd, 2017

ভারতের ইতিহাস পুনরায় লেখার উপরে জোর দিয়েছেন বিজেপি মহাসচিব কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। আজ (রোববার) তিনি টিপু সুলতানের ঐতিহাসিক ভূমিকা নিয়ে বিতর্ক হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন।

বিজেপি’র কেন্দ্রীয় নেতার মন্তব্য এমন সময় প্রকাশ্যে এল যখন কর্ণাটকের কংগ্রেস সরকার আগামী ১০ নভেম্বর টিপু সুলতানের জন্মবার্ষিকী পালন করতে যাচ্ছে এবং এ নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়েছে।

বিজেপি নেতা ও কেন্দ্রীয় দক্ষতা উন্নয়ন দফতরের প্রতিমন্ত্রী অনন্ত কুমার হেগড়ে কর্ণাটক রাজ্যের মুখ্যসচিব ও উত্তর কন্নড়ের ডেপুটি কমিশনারকে চিঠি পাঠিয়ে টিপু সুলতান জন্মবার্ষিকীতে তাকে আমন্ত্রণ না জানাতে বলেছেন।

তিনি টিপু সুলতানকে নৃশংস হত্যাকারী, গোঁড়া ধর্মোন্মাদ, গণধর্ষণকারী বলে কটু মন্তব্য করেছেন। হেগড়ে বলেছেন, এমন একজনকে মহিমান্বিত করে তোলার লজ্জাজনক অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রণ না জানাতে বলেছি কর্নাটক সরকারকে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ওই অবস্থানের সমালোচনা করেছেন কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া। তিনি বলেছেন, একজন মন্ত্রী হয়ে ওনার এমন কথা লেখা উচিত হয়নি। অহেতুক এটাকে রাজনৈতিক ইস্যু করা হচ্ছে। ব্রিটিশের বিরুদ্ধে চারটি যুদ্ধে লড়েছিলেন টিপু সুলতান।

ওই ঘটনার জের না মিটতেই এবার বিজেপি মহাসচিব কৈলাশ বিজয়বর্গীয় টিপু সুলতান ইস্যুতে মাঠে নেমে ভারতের ইতিহাসকে নতুনভাবে লেখার উপরে জোর দিয়েছেন।

কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, ‘দেশের ইতিহাস সঠিকভাবে লেখা হয়নি। একে পুনরায় নতুনভাবে লেখা প্রয়োজন। ইতিহাসে টিপু সুলতানের উল্লেখ নিয়েও নতুনভাবে চিন্তা করা উচিত এবং এ নিয়ে বিতর্ক হওয়া উচিত।’

তিনি বলেন, ‘দেশের ইতিহাস লেখকরা কোথাও কোথাও ইংরেজদের গুলাম ছিলেন। তারা ইচ্ছাকৃতভাবে এমন ইতিহাস লিখেছেন যে আমরা আমাদের মহাপুরুষদের নিয়ে গর্ব করতে পারি না। যেরকম মহারাণা প্রতাপ ও আকবর সমসাময়িক ছিলেন। ইতিহাসে আকবরকে মহান বলা হয়েছে। কিন্তু দেশের সংস্কৃতি রক্ষার জন্য জঙ্গলে বাস করে ঘাসের রুটি খাওয়া মহারাণা প্রতাপকে মহান বলা হয়নি।’

তার অভিযোগ, ঐতিহাসিকদের চাটুকারিতার জন্য দেশের মহান ব্যক্তিত্বরা সঠিক স্থান পায়নি।