ব্রেক্সিটের জন্য যুক্তরাজ্যকে শাস্তি দেওয়া হবে : ওলাঁদ

ব্রেক্সিটের জন্য যুক্তরাজ্যকে শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাসোয়াঁ ওলাঁদ।

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত অন্যান্য দেশ যেন সংগঠনটি থেকে বেরিয়ে যেতে সাহস না করে, সে বিষয়ে সতর্ক করতেই এই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার রাতে প্যারিসে এক নৈশ্যভোজ অনুষ্ঠানে ওলাঁদ এ কথা বলেন। তার এমন বক্তব্যের পর শুক্রবার যুক্তরাজ্যের মুদ্রাবাজারে অস্থিতিশীলতা দেখা দেয়। কিছু সময়ের জন্য ইউরোর বিপরীতে পাউন্ড দুর্বল হয়ে পড়ে।

ওলাঁদ জানান, এখন ইইউকে রক্ষা করা এর জনক ফ্রান্স ও জার্মানির দায়িত্ব।

তিনি বলেন, ‘আজ যুক্তরাজ্য কোনো ক্ষতিপূরণ না দিয়েই বের হয়ে যেতে চাইছে। এটি সম্ভব না। দ্ব্যর্থবোধক অবস্থায় থাকা ইইউ বা যুক্তরাজ্য কারো জন্যই মঙ্গলজনক নয়।’

ওলাঁদ আরো বলেন, ‘ব্রিটেন ব্রেক্সিটের মতো কঠিন একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ভাল কথা। ইইউ ত্যাগের যুক্তরাজ্যের ইচ্ছাকে আমাদের ভালোভাবে খতিয়ে দেখতে হবে এবং আমাদেরকে কঠোর হতে হবে। যদি এটি না করি, তাহলে ইইউর প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো বিপদগ্রস্ত হবে।’

যুক্তরাজ্যের দেখাদেখি অন্যান্য দেশও ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চিন্তা-ভাবনা করতে পারে বলে মনে করেন ওলাঁদ।

তিনি বলেন, ‘ইউরোপ সবসময়ই সংকটের ভেতর দিয়ে গেছে। তবে এবারের সংকটটি ভিন্ন। এবার ইউরোপ সংকটের কারণ নয়। বরং ইউরোপই সংকটে রয়েছে।’

ব্রেক্সিট নিয়ে এসব বক্তব্যের মাধ্যমে ওলাঁদ মূলত জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেলের কণ্ঠেরই প্রতিধ্বনি তুললেন।

ওলাঁদের একদিন আগে বুধবার অ্যাঞ্জেলা মেরকেল বলেন, ‘ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর যুক্তরাজ্য যদি অভিবাসনকে সীমিত করে ফেলে, তবে ইউরোপের অভ্যন্তরীণ বাজারে তাদেরকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।’

You Might Also Like