ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ২৪ হাজার বার পর্নোগ্রাফি সাইটে প্রবেশচেষ্টা

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের কম্পিউটারগুলো থেকে প্রতিদিন গড়ে ১৬০ বার পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইটগুলোতে প্রবেশের চেষ্টা করা হয়। ২০১৭ সালের শেষ দিকের এই তথ্য সোমবার প্রকাশ করেছে দেশটির প্রেস অ্যাসোসিয়েশন।

তথ্য অধিকারের আওতায় প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত তথ্যের জন্য আবেদন করা হয়েছিল। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক ব্যবহার করেন হাউস অব কমন্সের এমপি, উচ্চকক্ষ হাউজ অব লর্ডসের লর্ড ও তাদের কর্মচারী এবং অতিথিরা।

এতে বলা হয়েছে, গত বছরের জুনে সাধারণ নির্বাচনের পর থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ২৪ হাজার ৪৭৩ বার পার্লামেন্টের কম্পিউটারগুলো থেকে পর্নোগ্রাফি সাইটে প্রবেশের চেষ্টা করা হয়। সে হিসেবে প্রতিদিন গড়ে ১৬০ বার পর্নোগ্রাফি সাইটে প্রবেশের চেষ্টা করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ অবশ্য জানিয়েছে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এই চেষ্টা স্বেচ্ছায় করা হয়নি।

এতে আরো বলা হয়েছে, পর্নোগ্রাফি সাইটে প্রবেশের চেষ্টা গত কয়েক বছর ধরে হ্রাস পাচ্ছে। ২০১৬ সালে ১ লাখ ১৩ হাজার ২০৮ বার চেষ্টা করলে তা ব্লক করে দেওয়া হয়ে্যেছ। এর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৫ সালে এ সংখ্যা ছিল ২ লাখ ১৩ হাজার ২০।

পার্লামেন্টের এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘পার্লামেন্টের কম্পিউটার নেটওয়ার্কে সব পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইট ব্লক করা রয়েছে। ওই সব ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টা অধিকাংশ ক্ষেত্রে অনিচ্ছাকৃত। পাওয়া উপাত্তে দেখা যাচ্ছে এগুলো ছিল ওয়েবসাইটে প্রবেশের অনুরোধ, সেগুলো দেখার নয়।’

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালে ব্রিটিশ উপপ্রধানমন্ত্রী ডেমিয়ান গ্রিনের বিরুদ্ধে হাউজ অব কমন্সে তার কার্যালয়ের কম্পিউটারে পর্নোগ্রাফি ডাউনলোড করা ও তা দেখার অভিযোগ ওঠে। ওই অভিযোগ অস্বীকার করার পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ডিসেম্বরে পদত্যাগে বাধ্য হন তিনি।

You Might Also Like