হোম » বেগম খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশী ও ভাংচুরের প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির মানব বন্ধন ও আলোচনা সভা

বেগম খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশী ও ভাংচুরের প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির মানব বন্ধন ও আলোচনা সভা

admin- Thursday, May 25th, 2017

বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশী ও ভাংচুরের প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি প্রতিবাদ, মানব বন্ধন ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। ২১ মে ২০১৭ রবিবার আয়োজিত মানব বন্ধনে মিজানুর রহমান ভূঁইয়া মিল্টনের নেতৃত্বে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর শওকত আলী, আব্বাছ উদ্দিন দুলাল, আব্দুস সবুর মোর্শারফ হোসেন সবুজ প্রমূখ। বক্তারা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ভিশন-২০৩০ স্বৈরাচারী আওয়ামী সরকারকে ভীত সন্ত্রস্থ করে তুলেছে। তারা আদর্শিক মোকাবেলায় ব্যার্থ হয়েই রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যাবহার করে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে হেয় করছে। দেশ পরিচালনায় সর্বতোভাবে ব্যার্থ অবৈধ সরকার তাদের পাহারসম ব্যার্থতা ঢাকতেই তিনবারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশী ও ভাংচুর করা হয়েছে। এটা সরকারের বাকশালী ও প্রতিহিংসামুলক অপরাজনীতির বহিপ্রকাশ। এজন্য সরকারকে কঠোর মুল্য দিতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ১ম জয়েন কনভেনার ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মিজানুর রহমান ভূঁইয়া মিল্টনের আহ্বানে নিউ ইয়র্ক বিএনপির তাৎক্ষণিক আয়োজনের ডাকে বিক্ষোভ কর্মসুচী উপলক্ষে ডাইভারসিটি প্লাজায় খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে ব্রুকলিন, কুইন্স, ব্রঙ্কস মেনহাটান সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতাকর্মী জমায়েত হন। সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক সুরুজ্জামান, আতিকুল হক আহাদ, ওমর ফারুক, সফিক দুলাল, হারুন রশিদ ভূইয়া, আবুল কালাম আজাদ, আহসান নুমান নাজমুল, আব্দুল কাদের, মাসুদ, জীবন সফিক, বদরুল মীর্জা প্রমূখ।  সমাবেশ শেষে অংশগ্রহণকারীরা মিছিল নিয়ে মেজবান হোটেলে যান এবং সেখানে এক কর্মী সমাবেশের আয়োজন হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ডা. শওকত আলী তাঁর বক্তব্যে বলেন- আওয়ামীলীগের একদলীয়, স্বৈরাচারী, বাকশালী অপশাসনের রাজনীতির বিপরীতে বেগম খালেদা খালেদা জিয়ার গনতান্ত্রিক উন্নয়নমুখী রাজনীতি দেখে তারা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়েই তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশী ও ভাংচুর চালানো হয়েছে। এসব অপরাজনীতির জন্য অবশ্যই কঠোর মুল্য দিতে হবে।

মিজানুর রহমান ভূঁইয়া মিল্টন বলেন- আওয়ামীলীগ আদর্শিক রাজনীতিতে বিশ্বাস করেনা। তারা গায়ের জোরে দেশ পরিচালনা করছে। তিনবারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশীর নামে হামলা ভাংচুর কোন সভ্য সরকারের কাজ হতে পারেনা। এজন্য জনতার আদালতে ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকারের কর্তাব্যাক্তিদের জবাবদিহী করতে হবে। অবৈধ হাসিনা সরকারের পতন ঘটাতে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার হাতকে শক্তিশালী করতে সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীর প্রতি আহ্বান জানান।