বিমানমন্ত্রীর হলফনামায় অসঙ্গতি, সম্পদ ১৭ গুণ!

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামালের সম্পদের পরিমাণ অস্বাভাবিকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গত এক বছরে তার সম্পদ বেড়েছে প্রায় ১৭ গুণ।

বর্তমানে শাহজাহান কামালের ৩ কোটি ৬ লাখ ১২ হাজার ৭০৭ টাকার সম্পদ আছে। গত বছর তার সম্পদের পরিমাণ ছিল ১৭ লাখ ৩৫ হাজার টাকা। কিন্তু নির্বাচনী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় দাখিলকৃত হলফনামার সাথে সঠিক তথ্য জমা না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তিনি লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য।

মনোনয়নপত্রের হলফনামায় শাহজাহান কামালের আয়কর রিটার্নটি সম্পূর্ণভাবে ভুল ও অসঙ্গতিপূর্ণ উল্লেখ করে শনিবার লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলম জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। এদিকে অভিযোগটি আমলে নিয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল এ বিষয়টি আয়কর কর্মকর্তাকে জানানোর জন্য তাকে পরামর্শ দিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শাহজাহান কামালের অপরিশোধিত কর হচ্ছে ২ লাখ ২ হাজার ৯১৪ টাকা। গত বছর তার ১৭ লাখ ৩৫ হাজার টাকার সম্পদ ছিল। এখন তার সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৬ লাখ ১২ হাজার ৭০৭ টাকা। এক বছরে ২ কোটি ৮৮ লাখ ৭৭ হাজার ৭০৭ টাকার সম্পদ বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু চলতি বছরে তার অর্জিত তহবিল ৯ লাখ ৫৬ হাজার ৬১২ টাকা। এতে অসঙ্গতি রয়েছে ২ কোটি ৭৯ লাখ ২১ হাজার ৯৫ টাকা। এসব অর্থ আয়ের উৎস মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দেওয়া হলফনামায় উল্লেখ করা হয়নি। এ ছাড়া, বিমানমন্ত্রীর নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ের বিপরীতে ৫০ লাখ টাকা সালামি গ্রহণের বিষয়টিও অসঙ্গতিপূর্ণ।

লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, ‘শাহজাহান কামালের অস্বাভাবিকভাবে সম্পদের পরিবৃদ্ধির বিষয়টি মনোনয়নপত্রের হলফনামায় উল্লেখ করা হয়নি। বিষয়টি আমি জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মৌখিকভাবে জানিয়েছি।’

প্রসঙ্গত, লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসন থেকে এ কে এম শাহজাহান কামাল ও গোলাম ফারুক পিংকু আওয়ামী লীগের মনোয়নপ্রত্যাশী।

You Might Also Like