বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না সৃজিতের

ফের নতুন বিতর্কে জড়ালেন কলকাতার জনপ্রিয় চলচ্চিত্র নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি। সম্প্রতি শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে এসে গরুর গোস্ত খাওয়ায় তুমুল বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন তিনি।

 

কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি ও বাংলাদেশের মডেল এবং অভিনেত্রী মিথিলা গেল ৬ ডিসেম্বর বিয়ে করেছেন। বিয়ের পর সুইজারল্যান্ড আর গ্রিসে হানিমুন কাটিয়ে সম্প্রতি নতুন বউকে সঙ্গে নিয়ে প্রথমবারের শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে বাংলাদেশে আসেন সৃজিত মুখার্জি।

 

শ্বশুর বাড়িতে দারুণ আপ্যায়ন হয়েছে তার। মনের আনন্দেই সৃজিত প্রকাশ করেছেন শ্বশুর বাড়ির ভুরিভোজের ছবি। খাবারের তালিকায় কী কী ছিল তা জানাতে গিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন সৃজিত। ঝিরিঝিরি আলুভাজা, লইট্টা শুটকি, ডাল, কড়াইশুঁটি দিয়ে পাবদা মাছ, মুরগির ঝোল আর বাঁধাকপি দিয়ে গরুর গোশত ছিল খাবারের তালিকায়।

 

সৃজিত মুখার্জির খাবারের তালিকাতে গরুর গোস্ত দেখে তাকে আক্রমণ করেছেন অনেকেই। এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘হিন্দু নামে কলঙ্ক আপনি। আপনাকে খুব সম্মান করতাম। কিন্তু এই পোস্টটা পড়ার পর থেকে আপনাকে এখন খুব ঘৃণা করি, আপনি হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করুন।’ কেউ আবার প্রশ্ন করেছেন, আপনি কি ব্রাহ্মণ? মুখার্জি পদবীটা কেন ব্যবহার করছেন?

 

এবার ঝামেলা শুটিং নিয়ে। সিনেমার শুটিং করতে গিয়ে আইন না মানার অভিযোগ এসেছে তার ওপর। এমনকি আইন লঙ্ঘনের অপরাধে তার শুটিং টিমকে জরিমানাও করা হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ির লসা রেঞ্জের পানঝোড়া বস্তি সংলগ্ন জঙ্গল এলাকায় ফেলুদা ওয়েব সিরিজের শুটিং চলাকালে তাকে জরিমানা করা হয়।

 

জানা গেছে, একাধিক অভয়ারণ্য এবং সেনা ছাউনি থাকার কারণে উত্তরবঙ্গ একটা স্পর্শকাতর জায়গা। ওই এলাকার পানঝোড়া বস্তি সংলগ্ন জঙ্গলের পাশেই মূর্তি নদী। নদীর পাশেই ড্রোন উড়িয়ে নেয়া হচ্ছিল বিভিন্ন শট। সেই সময়েই বনবিভাগের দুই কর্মী ফেলুদা টিমকে বাধা দেন। তাদের অভিযোগ, শুটিংয়ের ওই দলটির কাছে ড্রোন ওড়ানোর কোনো অনুমতি ছিল না। পরে ফেলুদা টিমকে জরিমানা করা হয়।

 

এ ঘটনায় পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেন, ‘গতকাল যা হলো তা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। আমাদের যিনি স্থানীয় কো-অর্ডিনেটর, যিনি এসবের পারমিশন করান, তিনি বলেছিলেন, মূর্তি নদীর ওপারে জঙ্গল। তাই ওপারে ড্রোন ওড়ানো নিষেধ। তাই আমরা মূর্তির এপারে ড্রোন ওড়াচ্ছিলাম। পরে বনবিভাগের কর্মীদের অনুরোধে তৎক্ষণাৎ ড্রোন নামিয়ে নেয়া হয়। যদিও তখন আমাদের অনেক শটই বাকি ছিল।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে বন বিভাগের স্থানীয় কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করি। তিনি বলেন, যেহেতু এটি আইনবিরুদ্ধ, তাই জরিমানা দিতে হবে। আমরা তাকে বলি, আমাদের স্থানীয় কো-অর্ডিনেটর ব্যাপারটি ভালোভাবে ব্যাখ্যা করতে পারেননি বলেই এই কনফিউশনের সৃষ্টি হয়েছে।’

 

জানা গেছে, শেষ পর্যন্ত সৃজিতকে জরিমানা গুনতেই হয়েছে। বিষয়টি মিটমাট হবার পর আবার শুটিং চলছে। তবে পরবর্তীতে যাতে ড্রোন শট নিয়ে কোনো ধরনের সমস্যা না হয়, সেজন্য দিল্লিতে আবেদন করেছেন পরিচালক। সৃজিতের ওয়েব সিরিজ ফেলুদার চরিত্রে দেখা যাবে টোটা রায়চৌধুরীকে।

 

 

বিয়ের একমাস না হতেই সুখবর পেলেন সৃজিত!

 

জয়াকে পেতে যা করতে রাজি ছিলেন সৃজিত!

 

সৃজিতের সঙ্গে বিয়ে নিয়ে যা বললেন মিথিলা

 

মিথিলা-ফাহমির নামে ভিডিও ভাইরাল, নেয়া হচ্ছে আইনি ব্যবস্থা

 

মিথিলা-ফাহমির নামে ৮ মিনিটের ভিডিও ভাইরাল!

মিথিলার কেন প্রশংসা করলেন ভারতীয় নির্মাতা সৃজিত?

 

অভিনয় থেকে যৌন ব্যবসায় জড়িয়েছে যেসব নায়িকারা

 

“বিশ্বাস করুন এই দিনটির অপেক্ষায় ছিলাম” [ভিডিওসহ]

 

`আমার বয়স ৩৭ বছরের একদিনও বেশি নয়’

ডিপজলের বাসায় হঠাৎ পুলিশের হানা, ভেতরে চিত্রনায়িকা রেসি!

You Might Also Like