বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বলে কিছু নেই: র‌্যাব

র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বলে কিছু নেই।
তিনি প্রশ্ন রাখেন, ‘ক্রসফায়ার’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলে ‘বিচারভূক্ত’ হত্যাকাণ্ড কোনটি।
রোববার দুপুরে নগরীর লবনচরাস্থ র‌্যাব-৬ এর প্রধান কার্যালয়ে বর্তমান সহিংস রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা বলেন।
র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অস্ত্র দেয়া হয়েছে জনগনের নিরাপত্তা এবং আত্মরক্ষার্থে গুলি করার জন্য। আর গুলি করলে তাতে কেউ মারাও যেতে পারে। ‘হাণ্ডডুডু বা ডাঙ্গুলী’ খেলার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অস্ত্র দেয়া হয়নি।’
তিনি বলেন, ‘একটি গোষ্ঠি নাশকতার মাধ্যমে দেশে সহিংসতা ছড়িয়ে দিচ্ছে। এটি কোন রাজনৈতিক আন্দোলন হতে পারে না। দেশের প্রতিটি নাগরিকই যাতে শান্তিতে বসবাস করতে পারেন সে পরিবেশ সৃষ্টি করাই র‌্যাবের দায়িত্ব। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে হাতেণ্ডহাত ধরে কাজ করতে পারলে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।’
চলমান সহিংস রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে ঘোষিত পুরস্কার প্রসঙ্গে র‌্যাব প্রধান বলেন, র‌্যাবের মূল লক্ষ্য পুরস্কার দেওয়া নয়। দেশ, ভূখন্ড, মানচিত্র ও পতাকার স্বার্থেই দেশ প্রেমিক নাগরিকরা অপরাধীদের তথ্য দিয়ে র‌্যাবকে সহায়তা করবে বলে আশা করেন তিনি।
র‌্যাবের সংস্কার করা হবে উল্লেখ করে বেনজীর আহমেদ বলেন, র‌্যাবের গৌরবময় দশ বছর পূর্ণ হয়েছে। নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে অপরাধের সঙ্গে র‌্যাবের সম্পৃক্ততার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, র‌্যাব কোন ধরনের ভাবমূর্তি সংকটে নেই। তবে কতিপয় বিপদগামী সদস্য অপরাধ করায় তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতেও এ বিষয়ে জিরো টলারেন্স দেখানো হবে।
ব্রিফিংকালে খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আব্দুস সামাদ, রেঞ্জ ডিআইজি এস.এম. মনিরুজ্জামান, কেএমপি কমিশনার নিবাস চন্দ্র মাঝিসহ বিজিবি, কোস্টগার্ডসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে র‌্যাব মহাপরিচালক খুলনার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

You Might Also Like