বাসযোগ্য ‘পৃথিবীর’ সন্ধান পাওয়া গেছে

মহাবিশ্বে আরেক বসবাসযোগ্য ‘পৃথিবীর’ সন্ধান পাওয়া গেছে। তবে সেই পৃথিবীর অবস্থান এই সৌরজগতে নয়। জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা বলেছেন, এই পৃথিবীর আকারের চেয়ে বড় সেই পৃথিবী। সৌরজগতের বাইরে কে২-১৮বি নামের এই গ্রহের (এক্সোপ্লানেট) ভর, ব্যাসার্ধ এবং পরিবেশসংক্রান্ত তথ্যাদি বিশ্লেষণ করে জানা গেছে, সেখানে পানি থাকতে পারে।

যুক্তরাজ্যের কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা এসব তথ্য জানিয়েছেন। এ নিয়ে একটি গবেষণা নিবন্ধ অ্যাস্ট্রোফিজিক্যাল জার্নাল লেটার নামের সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে। কে২-১৮বি নামের এই এক্সোপ্লানেটকে তথাকথিত গ্রহ বলা হচ্ছে। কারণ, এটি আমাদের সৌরজগতে নয়। ১২৪ আলোকবর্ষ দূরে লিও নক্ষত্রপুঞ্জে এর অবস্থান। আর এটি আমাদের পৃথিবীর থেকে প্রায় আট গুণ বড়। একে বলা হচ্ছে ‘সুপার আর্থ’। বিজ্ঞানীরা বলছেন, কে২-১৮বি নক্ষত্র থেকে এমন উপযোগী দূরত্বে রয়েছে, যার ফলে সেখানে জীবন ধারণ করা সম্ভব।

বিজ্ঞানীরা আরও জানিয়েছেন, এটাই প্রথম সুপার আর্থ নয়। এর আগে শত শত সুপার আর্থের সন্ধান পাওয়া গেছে। আর এই কে২-১৮বির সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল ২০১৫ সালে।

এটি আবিষ্কারের পর থেকে গবেষকেরা এর পরিবেশ নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। এরপর গত সেপ্টেম্বরে গবেষকদের দুটি দল জানিয়েছিলেন, তাঁরা কে২-১৮বিতে বাষ্পের সন্ধান পেয়েছেন। এ ছাড়া সেখানকার পরিবেশে হাইড্রোজেন রয়েছে। তবে সেখানকার তলদেশের পরিবেশ এবং এর অবস্থা সম্পর্কে এই প্রথম পরিষ্কার ধারণা পাওয়া গেছে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের নতুন এই গবেষণায়।

এই গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত নিক্কু মধুসূদন। তিনি বলেন, এমন অনেক এক্সোপ্লানেট রয়েছে, যেখানে বাষ্প পাওয়া গেছে। এমন অনেক এক্সোপ্লানেট রয়েছে, যেগুলো নক্ষত্র থেকে একটি আদর্শ দূরত্বে রয়েছে, যার ফলে সেখানকার পরিবেশ বসবাসের উপযোগী। কিন্তু এই এক্সোপ্লানেটগুলোর পৃষ্ঠদেশ বসবাসের উপযোগী নয়। কে২-১৮বির পরিবেশ বসবাসের উপযোগী।

গবেষকেরা জানিয়েছেন, সেখানকার পরিবেশের মিথেন ও অ্যামোনিয়া গ্যাসের পরিমাণ প্রত্যাশার চেয়ে কম। সেখানে সাগর থাকতে পারে। সেখানকার তাপমাত্রা ও চাপ পৃথিবীর সমান হতে পারে।

You Might Also Like