বাগেরহাটে রাজু হত্যা মামলায় ১২ জনের যাবজ্জীবন

বাগেরহাটে ছাত্রলীগ কর্মী আরিফ হাসান রাজু হত্যা মামলায় ১২ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ মো. মিজানুর রহমান খান এই রায় প্রদান করেন। একই সঙ্গে আদালত দণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেক আসামিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের যাত্রাপুর গ্রামের আব্দুর ছাত্তারের চার ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২৩), শেখ নূর হোসেন (২১), শেখ নজরুল (২০), শওকত শেখ (৩২), একই গ্রামের দবির উদ্দিনের ছেলে আব্দুর ছাত্তার (৫৮) ও নুরু শেখ (৪০), আব্দুল গনি শেখের ছেলে ফারুক শেখ (৩৩), আব্দুর রহমানরে ছেলে হোসেন শেখ (২১), চাপাতলা গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে জিয়ারুল শেখ (২৪), কামরুল শেখ (২৫), আব্দুল মান্নানের ছেলে সুলতান (২২) ও মৃত দবির উদ্দিনের ছেলে আব্দুল কাদের (৫০)।

রায় ঘোষণার সময় মামলার সকল আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার রাষ্ট্র পক্ষের কৌশলী ও বাগেরহাট জেলা পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলী এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘২০০৬ সালের ৪ সেপ্টেম্বর বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর এলাকায় ছাত্রলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠন নিয়ে বিরোধের জেরে আরিফ হাসান রাজুকে প্রতিপক্ষরা প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা শেখ নুর ইসলাম বাদী হয়ে ওইদিনই বাগেরহাট (সদর) মডেল থানায় ১২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ কে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাগেরহাট মডেল থানা পুলিশের তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান ২০০৭ সালে ২১ জানুয়ারি ১৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করে। মামলায় দীর্ঘ বিচারিক কার্যক্রম ও ১৩ জন সাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে সোমবার আদালত এই রায় প্রাদন করেন।’

You Might Also Like