বাকিংহাম প্যালেস ‘ছাড়তে হবে’ রানিকে

ব্রিটিশ সিংহাসনের মালিক রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে ছেড়ে দিতে হবে প্রাসাদ। বিবিসি অনলাইনে বুধবার সর্বাধিক পঠিত সংবাদের শীর্ষে রয়েছে এই প্রসঙ্গের খবর।

না, একেবারে প্রাসাদ ছেড়ে দিতে হবে না। রানির প্রাসাদ বাকিংহাম প্যালেস জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। মেরামত করা খুবই প্রয়োজন। অর্ধশতাব্দী আগের প্রাসাদটির প্লাস্টার খসে পড়া শুরু করেছে। অকেজো হয়ে পড়ার উপক্রম হয়েছে পানি সরবরাহের পাইপগুলো। জলাধারগুলোও ব্যবহার উপযোগিতা হারাচ্ছে।

বাকিংহাম প্যালেসের রাজ কর্মকর্তারা বলছেন, এই মুহূর্তে প্রাসাদ সংস্কার করা দরকার। সংস্কার কাজ চলার সময় রানিকে প্রাসাদের বাইরে কোথাও থাকতে হতে পারে। তবে কোথায় রানির থাকার ব্যবস্থা হবে, তা এখনো নির্দিষ্ট করা হয়নি।

আবার এমনও হতে পারে প্রাসাদের মধ্যেই বিশেষ ব্যবস্থায় রানির থাকার ব্যবস্থা করা হতে পারে, যদি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ সে ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

১৯৫২ সালে সিংহাসনে অভিষিক্ত হন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। সেই থেকে তিনি বাকিংহাম প্যালেসে থাকছেন। ৬৩ বছরের মধ্যে বড় ধরনের কোনো সংস্কার কাজ করা হয়নি প্রাসাদে। তা ছাড়া সংস্কার কাজে অঢেল অর্থের দরকার হবে। প্রাসাদের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সংস্কার কাজ শেষ করতে ১৫০ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ হবে।

এই বিপুল অর্থ রাজকোষে নেই। যুক্তরাজ্য সরকারকেই তা বহন করতে হবে। কিন্তু এরই মধ্যে স্কটল্যান্ড আবার বিগড়ে বসেছে কিছুটা। স্কটল্যান্ডে রানির সম্পত্তি থেকে যে আয় হয়, তার পুরোটা রাজকোষে জমা না দেওয়ার চিন্তা করছেন স্কটিশ আইনপ্রণেতারা। তাই যদি হয়, তবে সংস্কার কাজে বিলম্ব হতে পারে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।

You Might Also Like