হোম » বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা তিন লাখে পৌঁছাতে পারে : জাতিসংঘ

বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা তিন লাখে পৌঁছাতে পারে : জাতিসংঘ

এখন সময় ডেস্ক- Thursday, September 7th, 2017

মিয়ানমারের রাখাইনে সেনা দমন অভিযানের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা তিন লাখে পৌঁছাতে পারে বলে ধারণা করছেন জাতিসংঘ কর্মকর্তারা।

যেভাবে দলে দলে রোহিঙ্গারা পালিয়ে আসছে তাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়ে সঙ্কট মানবিক বিপর্যয়ে রূপ নিতে পারে বলে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস।

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর কঠোর অভিযানের ফলে আরও ব্যাপক এলাকাজুড়ে অস্থিতিশীলতা দেখা দেওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করে তিনি বলেন, রাখাইনের সহিংসতা মানবিক বিপর্যয় হয়ে দেখা দিতে পারে।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে মঙ্গলবার বিরল এক চিঠিতে মহাসচিব গুতেরেস রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

এদিকে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির বাংলাদেশ মুখপাত্র দ্বীপায়ন ভট্টাচার্য বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, জাতিসংঘ কর্মকর্তারা প্রাথমিকভাবে ধারণা করেছিলেন এক লাখ ২০ হাজার শরণার্থী বাংলাদেশে আসতে পারে। এখন তারা মনে করছেন এ সংখ্যা তিন লাখে পৌঁছাতে পারে।

“তারা আসছে অপুষ্টির শিকার হয়ে, সম্ভবত এক মাসেরও বেশি সময় তারা প্রয়োজনমতো খাবার পায় না।

“তাদের ক্ষুধার্ত ও ভীত-সন্ত্রস্ত দেখাচ্ছে।”

শরণার্থীরা নৌকা ছাড়াও স্থল সীমান্তের অনেক জায়গা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে বলে জানান দ্বীপায়ন।

রাখাইনের কয়েকটি পুলিশ ফাঁড়ি এবং একটি সেনা ক্যাম্পে ২৪ অগাস্টে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার পর সেখানে নতুন করে সহিংসতা শুরু হয়েছে।

রোহিঙ্গাদের ২৬শ’ বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, ৪০০ রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে। প্রায় দেড়লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে এসেছে রাখাইন থেকে।

জীবন ভয়ে পালিয়ে আসা গুরুতর আহত মানুষ, খাদ্যহীন-আশ্রয়হীন নারী-শিশু-বৃদ্ধরা এভাবে আসতে থাকলে পরিস্থিতি আয়ত্তের বাইরে চলে যাওয়ার আশঙ্কা আছে। যেভাবে শরণার্থী বাড়ছে তাতে শিগগিরই আশ্রয়ের ক্ষেত্রে বড় ধরনের সংকট তৈরি হতে পারে।

তাছাড়া এই বিপুলসংখ্যক শরণার্থীর ন্যূনতম চাহিদা পূরণে হিমশিম খাচ্ছে ত্রাণ সংস্থাগুলোও। ফলে বড় একটি মানবিক বিপর্যয়ের মুখেই দাঁড়িয়ে আছে অসহায় এ রোহিঙ্গারা।