বাংলাদেশে আর গরীব মানুষ থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,  আশ্রায়ন প্রকল্পের মাধ্যমে আমরা গৃহহীনদের ঘর তৈরি করে দিচ্ছি। ‘বাংলাদেশে আর গরীব মানুষ থাকবে না।

শনিবার দুপুরে বিআইডব্লিউটিসি’র নবনির্মিত যাত্রীবাহী জাহাজ ‘এমভি বাঙালি’র উদ্বোধন শেষে জাহাজে করে চাঁদপুর জেলার মতলব থানার মোহনপুর ঘাটে পৌছে এসব কথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। আমরা বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করবো।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলার মানুষকে বিশ্ব সভায় মর্যাদায় আসনে আসীন করতে যে কোনো ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত আছি। প্রয়োজনে বাবার মতো বুকের রক্ত দিয়ে যাব। মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করবো। এই ওয়াদা দিয়ে গেলাম।’

সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ’৭৫-এ জাতির জনককে হত্যার পর যারা সংবিধান লঙ্ঘন করে ক্ষমতা দখল করেছে, যারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে রিরোধিতা করেছে বাংলার মাটিতে তাদের বিচার হবেই। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বাংলার মাটিতে হবেই। কেউ তাদের রক্ষা করতে পারবে না।

‘জাতির পিতা দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চেয়েছেন’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা চাই বাংলাদেশকে উন্নত, সমৃদ্ধ করতে।’

সবাইকে সর্তক থাকার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা, গণতন্ত্র কেউ যাতে নস্যাৎ করতে না পারে সে জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে, সর্তক থাকতে হবে।’

সরকার স্টিমার সার্ভিসকে আবারো পুনরুজ্জীবিত করার জন্য কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আগে স্টিমার সার্ভিস ব্যাপকভাবে চালু ছিল। আস্তে আস্তে এটি নষ্ট হয়ে যায়। আমরা এর পুনরুজ্জীবনের জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নিয়েছি।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, শাহাজাহান খান, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

You Might Also Like