বন্দুকযুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকসহ নিহত ৫

জম্মু ও কাশ্মির রাজ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলিতে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকসহ পাঁচ বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহত হয়েছে। নিহতরা সবাই কাশ্মিরের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের সদস্য।

রোববার সকালে সোপিয়ান জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

রাজ্য পুলিশ প্রধান শেশ পাউল টুইটারবার্তায় বলেছেন, ‘সোপিয়ানের বাড়িগ্রামে বন্দুকযুদ্ধ শেষ হয়েছে এবং পাঁচ সন্ত্রাসীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।’

পুলিশ সূত্র এনডিটিভি অনলাইনকে জানিয়েছে, কাশ্মির বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন মোহাম্মদ রাফি ভাট। কয়েক বছর আগে তিনি হিজবুল মুজাহিদিনে যোগ দেন।

রাফি শুক্রবার থেকে নিখোঁজ ছিলেন। তাকে আত্মসমর্পণে রাজি করাতে পুলিশ তার বাবা-মাকে গানডারবাল জেলা থেকে সোপিয়ানে নিয়ে এসেছিল। কিন্তু ভাট আত্মসমর্পণে রাজি হননি।

পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শৈলেন্দ্র মিশ্র বলেছেন,‘আমরা তাদেরকে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানিয়েছিলাম, কিন্তু তারা গুলিবর্ষণ অব্যাহত রাখে।’

নিরাপত্তা বাহিনী যখন অভিযান শুরু করে তখন অধ্যাপক রাফি হিজবুল কমান্ডার সাদ্দাম পাদ্দারের সঙ্গে বৈঠক করছিলেন। ২০১৬ সালের ৮ জুন বুরহান ওয়ানি নামে যে হিজবুল জঙ্গিকে হত্যা করতে সক্ষম হয়েছিল নিরাপত্তা বাহিনী, সাদ্দাম ছিল সেই বুরহানেরই ঘনিষ্ঠ সহযোগী।

You Might Also Like