বনে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইলে এক তরুণীকে রাস্তা থেকে অপহরণ করে মধুপুর বনে নিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দুই নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পরে তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন ওই তরুণী।

মধুপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম বলেন, সোমবার মেয়েটি তার চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে মধুপুর গড় এলাকার ঘুঘুর বাজার নামক স্থানে এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিলেন।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তারা টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের বড়বাইদ নামক স্থানে পৌঁছালে জলছত্র এলাকার আরিফ হোসেন (২৪) ও আমিনুল ইসলাম (২৩) তাদের পথরোধ করেন।

তারা মেয়েটির ভাইকে হুমকি দিয়ে মেয়েটিকে মধুপুর বনের ভেতর নিয়ে যান। কিছুক্ষণ পরই সড়কের ওই স্থান দিয়ে মধুপুর থানা পুলিশের একটি টহল ভ্যান যাচ্ছিল।

তখন মেয়েটির ভাই পুলিশ ভ্যান থামিয়ে বোনকে ধরে নিয়ে যাওয়ার কথা জানান। পুলিশ বনে ঢুকে ঘটনাস্থল থেকে ওই দুই যুবককে আটক করে। মেয়েটিকে উদ্ধার করে মধুপুর থানায় আনা হয়।

পুলিশ জানায়, মেয়েটি জানিয়েছেন তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। পরে মেয়েটি ওই দুজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছেন। মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ নিশ্চিত করে জানায়, আরিফ মধুপুরের অরনখোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ও আমিনুল অরনখোলা ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য।

তবে মধুপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফ আহম্মেদ নাসির বলেন, আরিফকে সভাপতি করে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যে কমিটি গঠন করা হয়েছে, সেটি এখনো পাস হয়নি।

আমিনুলের পরিচয়ের ব্যাপারে যুবলীগের স্থানীয় কয়েক নেতার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি।

You Might Also Like