বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে আরও অনেক রাঘব বোয়াল জড়িত ছিল : প্রধান বিচারপতি

বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে আরও অনেক রাঘব বোয়াল জড়িত ছিল। কিন্তু তদন্তে দুর্বলতার কারণে তাদের বিচারের আওতায় আনা সম্ভব হয়নি।

১৫ আগষ্ট মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচিতে তিনি একথা বলেন। প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমি নথি পর্যালোচনা করে দেখলাম এই ষড়যন্ত্রের মধ্যে আরো অনেক রাঘব বোয়াল জড়িত ছিল। কিন্তু ইনভেস্টিগেশনের (তদন্তের) ত্রুটির জন্য আমরা তাদের আর বিচারে সোপর্দ করতে পারিনি। যদিও আমাদের রায়ে আমরা পরিষ্কারভাবে বলে দিয়েছি, এটা একটা ক্রিমিনাল কনসপিরেসি, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছিল।’

তিনি বলেন, ‘ঘাতকদের উদ্দেশ্য ছিল বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে ইতিহাস থেকে মুছে ফেলা। বঙ্গবন্ধু হত্যার পরে হত্যাকারীদের বিচার করতে রাষ্ট্রের আইন দ্বারা বিচারকদের পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।

তিনি আরো  বলেন, “এই বিচার বিভাগের একজন সদস্য হিসেবে অত্যন্ত গর্ববোধ করছি; এই সুপ্রিম কোর্টই ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স বাতিল করে এই বিচারের সুযোগ করে দিয়েছিল।’

উল্লেখ্য, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গত বছর থেকেই প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার তত্ত্বাবধানে সুপ্রিম কোর্টে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি আয়োজিত হয়ে আসছে।

আজকের  অনুষ্ঠানে উপস্থিত সাংবাদিকরা সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে বিতর্ক প্রসংগে জানতে চাইলে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, রায় নিয়ে প্রকাশ্যে বা গণমাধ্যমে কিছু বলব না। তবে যা বলার কোর্টে বলব।

You Might Also Like