ফ্রান্সে বক্ষ উন্মুক্ত নারীদের ধাওয়া দিয়ে কুপোকাত পুলিশ

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে বিক্ষোভরত বক্ষ উন্মুক্ত নারীদের (টপলেস) ধাওয়া দিয়ে শেষপর্যন্ত কুপোকাত হলেন পুলিশ সদস্য। তাদের ধাওয়া দিয়ে নিজেই দেয়ালের সঙ্গে গুঁতো খেয়ে আহত হন। ২৫ থেকে ৩০ জন টপলেস নারী ওই বিক্ষোভে অংশ নেন।

মঙ্গলবার প্যারিসের বিচার ভবনের কাছের রাস্তায় বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেন টপলেস নারীরা। গত ১৫ অক্টোবর একজন নারীবাদী কর্মীকে টপলেস প্রদর্শনী করায় গ্রেফতার করে পুলিশ। তার সাজাও হয়েছে। এর প্রতিবাদে সমমনা নারীরা মঙ্গলবার বিক্ষোভের আয়োজন করে।

বিক্ষোভের সময় তাদের দেহে নারীবাদী স্লোগান লেখা দেখা যায়। হাতেও ছিল প্যাকার্ড ও পোস্টার। ‘বিবসনা ও মুক্ত’, ‘আমার দেহ, আমার অধিকার’ ধাঁচের লেখা দেখা যায়।

টপলেস নারীরা বিক্ষোভের সময় স্লোগান দেন- ‘নারীবাদীরা প্রদর্শনের বস্তু নয়, তারা সন্ত্রাসীও নয়’।

নারীবাদী এই দলের প্রধান উদ্যোক্তা ইনা শেভচেনকো বিক্ষোভে অংশ নেন। মঙ্গলবার পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে। অন্যরাও শেষ পর্যন্ত পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন।

উল্লেখ্য, ইনা শেভচেনকো তাদের এই আন্দোলন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দিতে এরই মধ্যে কানাডা, জার্মানি ও ইসরাইলে শাখা খুলেছেন। পশ্চিম ইউরোপে শুরু হওয়া আন্দোলন এখন দ্রুত অন্য দেশে সংক্রমণের মতো ছড়িয়ে যাচ্ছে।

তবে নারীবাদিতার নামে তাদের এই তথাকথিত টপলেস অধিকার আদায়ের আন্দোলনকে কোনো দেশ এখনো স্বীকৃতি দেয়নি।

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল।

You Might Also Like