ফোবানা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী সচিবের সাংগঠনিক সফর

শিব্বির আহমেদ : ফোবানা কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মানিত চেয়ারম্যান মীর চৌধুরী ও নির্বাহী সচিব জাকারিয়া চৌধুরীর সমন্বয়ে ফোবানার একটি প্রতিনিধি দল যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে সাংগঠনিক সফরের অংশ হিসেবে ২৬ এপ্রিল  সর্বপ্রথম ফোবানার যুগ্ম নির্বাহী সচিব ডক্টর রফিক খানের বাসভবনে গিয়ে অসুস্থ ডক্টর রফিক খানকে সমবেদনা জানান এবং তার স্বাস্থ্যের খোঁজ খবর নেন। এরপর নেতৃবৃন্দ হিউস্টনের জাতীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে তাদের কর্মসূচির সূচনা করেন। পুস্পস্তবক অর্পনের পর নেতৃবন্দ হিউষ্টন বাংলাদেশ সেন্টার পরিদর্শন করেন। এরপর টেক্সাসের হিউস্টন শহরে বাংলাদেশ সেন্টারে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ হিউস্টন কর্তৃক আয়োজিত টাউন হল মিটিং এ যোগদান করেন ।

এরপর পরেই মহারাজা রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ আমেরিকান সোসাইটি অফ গ্রেটার হিউস্টন নামের আর একটি সংগঠনের উদ্যোগে দ্বিতীয় টাউন হল মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করেন। পরদিন ২৭ এপ্রিল সন্ধ্যা সাতটায় বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ নর্থ টেক্সাস সংক্ষেপে বান্ট নামে পরিচিত সংগঠনের উদ্যোগে বৈশাখী উৎসবে বিশেষ অতিথি হিসাবে যোগদান করেন।

পরদিন ২৮ এপ্রিল দুপুর ১২ টায় বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ নর্থ টেক্সাস সংক্ষেপে বান্ট নামে পরিচিত সংগঠনের উদ্যোগে এক বিশেষ টাউন হল মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করেন। এর পরপরই ফোবানা নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশি আমেরিকান উইমেন অ্যাসোসিয়েশন অফ টেক্সাস পরিচালিত  ইন্টারন্যাশনাল বাংলা স্কুল পরিদর্শন করেন এবং ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বাংলাদেশ থেকে নিয়ে আসা বাংলা বই বিতরণ করেন।

একই দিন সন্ধ্যা সাতটায় ওকলাহোমা ইয়থ এসোসিয়েশন কর্তৃক আয়োজিত টাউন হল মিটিং এ অংশগ্রহণ করেন। ২৯ এপ্রিল সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত ফোবানা নেতৃবৃন্দ ২০২০ সালের ডালাস ফোবানা সম্মেলনের সম্ভাব্য ভেন্যু হিসেবে তিনটি ভেন্যু পরিদর্শন করেন। প্রতিটি মিটিংয়ে ফোবানার চেয়ারম্যান জনাব মীর চৌধুরী ১৯৮৭ সালে প্রতিষ্ঠিত ফোবানার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরেন এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে ফোবানার সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার অনুরোধ জানান। ফোবানা নির্বাহী সচিব জাকারিয়া চৌধুরী তার বক্তব্যে যুব সমাজকে ফোবানার সাথে আরো বেশী সম্পৃক্ত হওয়ার অনুরোধ জানান।

তিনি উত্তর আমেরিকার সকল প্রবাসী বাঙ্গালীদেরকে ফোবানার পতাকাতলে একতাবদ্ধ হয়ে বিশ্ববিখ্যাত কনভেনশন সেন্টার নাসাউ কলেসিয়ামে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন ফোবানা সম্মেলন কে সফল করার জন্য সকল প্রবাসী বাঙ্গালীদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান। সর্বমোট ৬ টি  মিটিংয়ে ফোবানা নেতৃবৃন্দের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন ফোবানা কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মানিত ভাইস চেয়ারম্যান জনাব শাহ হালিম, ফোবানার সাবেক চেয়ারম্যান জনাব নুরুল আমিন চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান বর্তমান নির্বাহী সদস্য জনাব হাসমত মবিন, বর্তমান নির্বাহী সদস্য খালেদ জুলফিকার খান, বর্তমান নির্বাহী সদস্য নাহিদা আলী ডেইজী, সাবেক নির্বাহী সদস্য নাহিদা নাসের ইয়াসমিন, সাবেক নির্বাহী সদস্য মায়া নেহাল, বর্তমান মিডিয়া এন্ড পাবলিক অ্যাওয়ারনেস কমিটির কো-চেয়ারম্যান জনাব রে নেহাল (রহিম) সহ সকল হোষ্ট সংগঠনের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ কার্যকরী পরিষদের আধিকাংশ সদস্য ও কমিউনিটির গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিটি টাউন হল মিটিং এ উপস্থিত ব্যক্তিবর্গ আগামীতে ও ফোবানাতে আরো অধিক হারে সংগঠন রেজিস্ট্রি করে ফোবানাতে সম্পৃক্ত হওয়ার আশা পোষণ করেন এবং আসন্ন ২০১৯ সালের ফোবানা সম্মেলন সফল এবং সার্থক করবার জন্য তাদের যার যার অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। একই সাথে ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য ডালাস ফোবানা সম্মেলনেও তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করবেন বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

You Might Also Like