ফেনীতে বাঁধ ভেঙে ২০টি গ্রাম প্লাবিত

প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে মুহুরী, কহুয়া ও সিলোনিয়া নদীর বেড়িবাঁধের ১৩টি অংশে ভাঙনের সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে পরশুরাম ও ফুলগাজী উপজেলার নিম্নাঞ্চলের ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এছাড়াও বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে সুবার বাজারের একাংশ, উত্তর মনিপুর, মধ্যম মনিপুর গদানগর, কালিকৃষ্ণ নগর, পূর্ব সাহেবনগরসহ গ্রাম।

এদিকে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে ফুলগাজীর কিসমত ঘনিয়া মোড়া গ্রামে মুহুরী নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে ফুলগাজী বাজার, কিসমত ঘনিয়া মোড়া, জয়পুর, পূর্ব ঘনিয়া মোড়া, পশ্চিম ঘনিয়া মোড়া, সাহাপাড়া, বৈরাগপুর, বরইয়া, দক্ষিণ দৌলতপুর, উত্তর দৌলতপুর, পেঁচিবাড়িয়া, কহুয়াসহ প্রায় ২০ গ্রাম পানিতে তলিয়ে যায়।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়- মুহুরী, কহুয়া ও সিলোনিয়া নদীর পানি বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

উপসহকারী প্রকৌশলি মফিজুর রহমান জানায়, বন্যার পানির দ্রুত নেমে যাচ্ছে।

বন্যার পানিতে ভেসে গেছে প্রায় ৫ শতাধিক পুকুরের মাছ, ১০ হাজার একর জমিতে লাগানো আমন ফসল। এছাড়া বন্যার পানির তোড়ে জয়পুর ও কিসমত ঘনিয়া মোড়া গ্রামের প্রায় ২০টি ঘর ভেসে গেছে। বহু মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে অবস্থান নিয়েছে।

You Might Also Like