ফেনীতে বউ-শাশুড়িকে ধর্ষণ শেষে ডাকাতি

ফেনীতে বউ-শাশুড়িকে ধর্ষণ শেষে আট ভরি স্বর্ণ, নগদ টাকা, মোবাইল ফোনসহ প্রায় সাত লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে ডাকাতরা।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে।

এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্ত সূত্র জানায়, ওইদিন রাত ২টার দিকে ১০-১২ জনের সশস্ত্র ডাকাতদল দৌলতপুর গ্রামের এক প্রবাসীর বাড়ির দরজা ভেঙে প্রবেশ করে।  এ সময় বাড়ির সদস্যদের হাত-পা বেঁধে একটি কক্ষে আটকে রেখে বউ-শাশুড়িকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

পরে তারা আলমারী ভেঙে নগদ আট ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ও মূল্যবান জিনিসপত্রসহ সাত লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে রবিবার দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। ওই বাড়ির মালিক দুই ছেলেসহ দীর্ঘদিন যাবত সংযুক্ত আরব আমিরাতে রয়েছেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জসিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো. মাহবুব মোর্শেদ জানান,ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। ডাকাতদের ধরতে পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে।

You Might Also Like