ফেইসবুকে খুনি!

ফেইসবুকে সাবধান! ফেইসবুকের মতো সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে অন্তত ছয় ধরণের খুনির সন্ধান পেয়েছেন গবেষকরা। মূলত ২০০৮ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যে ঘটে যাওয়া ৪৮টি ‘ফেইসবুক খুনে’র বিশ্লেষণ করে তৈরি হয়েছে অপরাধীদের বর্ণবিভাগ।

তারা হল প্রতিক্রিয়াশীল, চর, প্রতিদ্বন্দ্বী, কল্পনাবিলাসী, শিকারি ও প্রতারক। ইংল্যান্ডের বার্মিংহাম সিটি ইউনিভারসিটির সেন্টার ফর অ্যাপ্লায়েড ক্রিমিনোলজির অধ্যাপক এলিজাবেথ ইয়ারডেলি তাদের গবেষণায় বের করেছেন এই ধরণের অপরাধের মনস্তত্ব। গবেষণার ফলাফল বলছে, প্রতিক্রিয়াশীল অপরাধীদের খুন করে ক্রোধের বশে।

ফেইসবুকে কোনো মন্তব্য আপত্তিকর ঠেকলে, যিনি ওই মন্তব্য করে তাকে খুঁজে বের করে খুব করে সে। চরপ্রবৃত্তিকর অপরাধী আগে খুন করে ফেইসবুকে সেই খবর প্রচার করে। এইভাবেই সে জানতে চায়, আক্রান্ত এবং পরিস্থিতির উপর তাঁর নিয়ন্ত্রণ কতটা? ফেইসবুকে ঝগড়া শুরু করে সেটা অসহনীয় করে তোলা প্রতিদ্বন্দ্বী মানসিকতার অপরাধীর লক্ষণ। সে ঝগড়াকে শারীরিক হিংসার পর্যায়ে নিয়ে যেতে চায়।

কল্পনাবিলাসী অপরাধীর কাছে ফেসবুক কল্পনার জালবিস্তারের ক্ষেত্র। বেশিরভাগ সময়েই দেখা যায়, বাস্তব এবং কল্পনার সীমানা এদের কাছে অস্পষ্ট। পাছে তাদের তৈরি করা জগত ভেঙে যায় বা তাদের চাতুরি কেউ ধরে ফেলে, এই শঙ্কায় হত্যায় পিছপা হয় না এই ধরণের অপরাধী। শিকারি অপরাধী ফেসবুকে ভুয়ো পরিচয় দিয়ে শিকার ধরে। অন্য কারো পরিচয় ব্যবহার করে শিকার ধরা প্রতারক অপরাধীর কৌশল।

You Might Also Like