ফুটবলকে বিদায় বললেন মারিও গোমেজ

আন্তর্জাতিক ফুটবলকে আগেই বিদায় বলেছেন। এবার ক্লাব ফুটবলকেও বিদায় বললেন জার্মানির ফুটবলার মারিও গোমেজ। রোববার (২৮ জুন) জার্মানির ক্লাব স্টুটগার্টের হয়ে শেষ ম্যাচে মাঠে নামেন ৩৪ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার। ওই ম্যাচে স্টুটগার্ট ৩-১ ব্যবধানে ড্রামস্টাডের কাছে হারলেও দেশের শীর্ষ লিগ বুন্দেসলিগায় জায়গা করে নিয়েছে।

রোববার ম্যাচ শেষে গোমেজের মাঠ ছাড়ার ছবি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে স্টুটগার্ট লিখেছে, ডানকে, ধন্যবাদ @মারিও গোমেজ।’

স্টুটগার্টের হয়ে গোমেজ ১১০ টি গোল করেছেন। ক্লাবটির হয়ে শেষ ম্যাচেও পেয়েছেন গোলের দেখা।

এদিকে মারিও গোমেজের সাবেক ক্লাব তুরস্কের বেসিকতাসও তাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে। ইস্তাম্বুল ভিত্তিক ক্লাবটি এক টুইট বার্তায় লিখেছে, ‘ধন্যবাদ মারিও গোমেজ বেসিকতাসে দারুণ দারুণ কিছু যুক্ত করার জন্য।’ ২০১৬ সালে বেসিকতাসকে তুরস্কের সুপার লিগের শিরোপা জিতিয়েছিলেন গোমেজ। সেবার তিনি করেছিলেন ২৬ গোল।

গোমেজ স্টুটগার্ট, বেসিকতাস ছাড়াও জার্মানির বায়ার্ন মিউনিখ, ভলফসবুর্গ ও ইতালির ফিওরেন্তিনার হয়ে খেলেছেন।

২০১৩ সালে বায়ার্নের হয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছিলেন। ২০১০ ও ২০১৩ সালে বুন্দেসলিগার শিরোপা জিতেছিলেন। স্টুটগার্টের হয়ে ২০০৭ সালে জিতেছিলেন লিগ শিরোপা।

২০০৭ সালে জার্মানির হয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে অভিষেক হয়েছিল গোমেজের। ২০০৮ সাল থেকে জার্মানির হয়ে পাঁচটি বড় টুর্নামেন্টের দলে ছিলেন। অবশ্য ইনজুরির কারণে ২০১৪ বিশ্বকাপে খেলতে পারেননি তিনি। ২০১৬ ইউরো ও ২০১৮ বিশ্বকাপের দলে ছিলেন। জাতীয় দলের হয়ে ৭৮ ম্যাচে ৩১ গোল করা গোমেজের সেরা সাফল্য ২০০৮ ইউরোতে রানার্স আপ হওয়া।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে জার্মানির ভরাডুবির পর আগস্টে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর নেন তিনি।