ফিলিস্তিনি মসজিদের মাইকে আজান বন্ধ করে দেবে

ফিলিস্তিনি মসজিদগুলোর মাইকে আজান দেয়া বন্ধ করার বিলের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন ইহুদিবাদী ইসরসাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। রোববার মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে তিনি বলেছেন, এ প্রস্তাবের খসড়াকে সমর্থন করবেন তিনি।

ইসরাইলি গণমাধ্যম জানিয়েছে, বিলটি ইসরাইলি পার্লামেন্টে পাস হলে ফিলিস্তিনি মসজিদগুলোর মাইক থেকে আর আজান দেয়া সম্ভব হবে না।

বিলটি সব ধর্মের উপাসনালয়ের জন্য তৈরি হলেও বিশেষভাবে মসজিদের মাইক ব্যবহারকে টার্গেট করে এটির খসড়া তৈরি করা হয়েছে বলে মানবাধিকার কর্মীরা মনে করছেন। তারা বলছেন, অন্য কোনো ধর্মের উপাসনালয়ে মাইকের ব্যবহার নেই বললেই চলে।

ইসরাইলি মন্ত্রিসভা বিলটি অনুমোদন করার পর এটিকে চূড়ান্ত ভোটাভুটির জন্য পার্লামেন্টে পাঠানো হবে। বিলটিতে মাইকে আজান দেয়ার ‘অপরাধে’ মসজিদের মুয়াজ্জিনের জন্য জেল-জরিমানার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইল এর আগেও একবার মসজিদের মাইকে আজান প্রচার বন্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছিল। তখন এর অজুহাত হিসেবে বলা হয়েছিল ‘জাতিগত ও উস্কানিমূলক বাণী’ প্রচার বন্ধ করার লক্ষ্যে এটি করা হচ্ছে। আর এবার বলা হচ্ছে, উচ্চস্বরে আজান প্রচারের ফলে সাধারণ মানুষ ‘বিরক্ত’ হচ্ছে।

মানবাধিকার কর্মীরা তেল আবিবের এ পদক্ষপকে জনগণের ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ বলে মনে করছেন। ইসরাইলি মোটা জনসংখ্যার শতকরা ২০ ভাগ ফিলিস্তিনি। ইহুদিবাদী সরকারের পক্ষ থেকে তাদের আজান বন্ধ করে দেয়ার উদ্যোগকে জাতিগত বিদ্বেষ বলে মনে করছেন তারা।

You Might Also Like