ফিনল্যান্ডে ঘরবন্দী থেকেই ঈদ উযাপনঃ নেই ঈদের জামাত

জামান সরকার, হেলসিংকি থেকে : বছর ঘুরে শাওয়ালের এক ফালি চাঁদ ফিরে এলেও ফিনল্যান্ডে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এবার মেতে উঠেনি ঈদুল ফিতরে খুশির অনাবিল আনন্দে। এখানে এবারের ঈদ হচ্ছে ঘরবন্দী থেকেই।

ফিনল্যান্ডে এবার ঈদুল ফিতরের কোন জামাত অনুষ্ঠিত না হলেও প্রবাসী বাংলাদেশিরা সামাজিক দূরত্ব মেনে ঘরেই পরিবার পরিজনের সঙ্গে ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করছে। এ বছর কারও বাসায় কেউ গেল না। হলনা ঈদের কোলাকুলি, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়া এবং আত্মীয়-প্রতিবেশিদের নিয়ে ঈদ উদযাপন করা।

ঈদের ছুটিতে পরিবারের সঙ্গে পার্ক কিংবা সমুদ্রতটে ভ্রমণ করতে পছন্দ করে অধিকাংশ প্রবাসীরা। এ বছর এসব পর্যটন স্পটে কেউ ভিড় করতে পারলো না। তাই ঘরেই ঈদ উৎসবের আয়োজন থাকলো এখানে। করোনার কারণে এবার সবাই ঘরবন্দী থেকে অন্যরকম এক ঈদ করলো ফিনল্যান্ডে।

ঈদের আনন্দের মুহূর্তে প্রানপ্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশকে নিয়ে গভীর সংকট, উৎকণ্ঠা ও হতাশায় প্রাণে প্রাণে বহে নাই প্রবাসীদের খুশির জোয়ার।

এবারই ফিনল্যান্ড জুড়ে মুসলমানদের বিধিনিষেধের মধ্যে ঈদ পালন করতে হল, যার নজীর ইতিহাসে বিরল।

ঈদুল ফিতরে এই দিনে রাজধানী হেলসিংকিতে বসবাসরত বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মবিন মোহাম্মদ বলেন,  সামাজিক দূরত্ব মেনে আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করছি৷ করোনা চলে গেলে, দেশের পরিস্থিতি ভালো হলে তখন আনন্দ করা যাবে৷

ফিনল্যান্ডে ৩০ বছর যাবত বসবাসকারী রুবেল ভূঁইয়া বলেন, ঘরেই পরিবার ছেলে মেয়েদের নিয়ে ঈদের উৎসব করছি। ভিডিও কলে স্বজনদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছি। মসজিদে ঈদের নামাজ পড়া হলো না এটা অকল্পনীয়। সারা মাস আমরা এই দিনটির জন্য অপেক্ষায় থাকি।

ব্যবসায়ী সামসুল গাজী বলেন, গভীর সংকট, উৎকণ্ঠা ও হতাশার মধ্য দিয়ে বিশ্ববাসী আজ দিন পার করছে। ঈদুল ফিতরের আনন্দের মুহূর্তে দুর্দশাগ্রস্ত নিপীড়িত মজলুম মানবতার কথাও আমাদের ভাবতে হবে।

হেলসিংকির অধিবাসী মিজানুর রহমান মিঠু বলেন, এবার ঘরবন্দী থেকেই ঈদের আনন্দ করছি। শুধু নিজেদের নিয়ে ব্যস্ততা নয়, চারপাশে চোখ মেলে তাকাতে হবে আমাদের। তবে এই দিনটি কাঁটছে জান্নাতি খুশির আমেজে-আবহে।

 

You Might Also Like