ফরিদপুরে ৩ শিশুসহ চার অপমৃত্যু

ফরিদপুরে ভাইবোনসহ তিন শিশু ও অজ্ঞাত নারীর অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার দুপুর পর্যন্ত এদের মধ্যে ভাইবোনের লাশ উদ্ধার করা হলেও অপর শিশু ও নারীর লাশ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের লাশঘরে রয়েছে।

জানা গেছে, রোববার বিকেলে জেলার ভাঙ্গা উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের সুকলাল মালোর স্ত্রী রেনু রানী মালো (৫০), মেয়ে অনিতা মালো (১২) ও ছেলে সুব্রত মালোকে (৮) ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বিষক্রিয়ায় অসুস্থাবস্থায় ভর্তি করা হয়। সোমবার সকালে দুই ভাইবোনের মৃত্যু হয়। তাদের মা এখনো চিকিৎসাধীন। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

অসুস্থ রেনু মালো জানান, শনিবার রাতে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ার পর রোববার দুপুরে ঘরের দরজা ভেঙে অচেতন অবস্থায় তাদের প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ফরিদপুর কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতাল থেকে জানানো হয়েছে অজ্ঞাত বিষক্রিয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।

এদিকে একই জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের রামপ্রসাদের মেয়ে রুপা কীর্ত্তনীয়া (১২) রোববার মধ্যরাতে বিষ পান করলে তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার মৃত্যু হয়।

এছাড়া অপর এক অজ্ঞাত নারী ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

You Might Also Like