ফরিদপুরে হত্যার দায়ে স্বামীসহ ২ জনের ফাঁসি

ফরিদপুরের বোয়ালমারী ২০০৫ সালের লিপি বেগম হত্যা মামলায় স্বামীসহ দুইজনের ফাঁসি ও চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

একজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে খালাস দিয়েছেন আদালত। দুপুরে বিচারক শেখ মো. নাজমুল আলমের আদালত এই আদেশ দেন।

আদালত সূত্র জানিয়েছে, ২০০৫ সালের ১৫ জুলাই জেলার বোয়ালমারী উপজেলার আরুয়াকান্দি গ্রামে যৌতুকের দাবিতে লিপি বেগমকে নির্যাতন করে হত্যা করে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন।

ওই দিনই বোয়ালমারী থানায় লিপি বেগমের বাবা আকমল মৃধা বাদী হয়ে সাতজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। আসামি করা হয় স্বামী মোকাদ্দেস মৃধা, তার ভাই কবির মৃধা, জাকির মৃধা, সিরাজ মৃধা, আখির মৃধা, জালাল মৃধা ও বুলু বেগমকে।

মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে এর মধ্যে স্বামী মোকদ্দেস মৃধা ও কবির মৃধাকে ফাঁসির আদেশ ও বুলু বেগমকে বেকসুর খালাস এবং বাকি চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

রায় ঘোষণার সময় ফাঁসির দণ্ড পাওয়া কবির মৃধা ব্যতীত মামলার সব আসামিরা কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিল।

You Might Also Like