প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ায় প্রকাশিত ফল বাতিলের দাবি

সদ্য অনুষ্ঠিত মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষার প্রকাশিত ফল বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে  জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবিও জানিয়েছেন সংস্থাটি। ভবিষ্যতে এ ধরনের মেধাবিধ্বংসী কর্মকাণ্ড বন্ধের সকল সম্ভাবনা রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সরকারের কাছে আহ্বান জানায় টিআইবি।

গতকাল এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান এ দাবি জানান। তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষার আগের রাতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার তথ্য বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে প্রমাণসহ প্রকাশিত হয়। এরপর পরীক্ষার দিন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের কর্মকর্তাসহ ৩ জন গ্রেপ্তার হওয়ার পর তড়িঘড়ি করে ফল প্রকাশ করা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য হয়নি। এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রশ্নফাঁস হয়নি বলে দাবি করছেন। অন্যদিকে কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তার করছেন।

তিনি বলেন, সরকারের একাংশের এ অবস্থান প্রকৃতপক্ষে দোষীদের সুরক্ষা দেয়া এবং অনিয়ম প্রশ্রয় দেয়ার সমতুল্য বলে মনে করি। তিনি আরও বলেন, এর ফলে দেশে মেডিক্যালসহ উচ্চ শিক্ষার মান উদ্বেগজনকভাবে পদদলিত হবে, যার দায় সরকারকেই বহন করতে হবে।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, মেডিক্যাল, পাবলিক পরীক্ষা ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা রোধে সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে এর সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করে শিক্ষার গুণগত মান রক্ষা জরুরি হয়ে পড়েছে। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অস্বীকার করার সংস্কৃতি পরিহার করে যে কোন ধরনের ভয়-ভীতি ও করুণার ঊর্ধ্বে উঠে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে। একইসঙ্গে, টিআইবি মেডিক্যাল শিক্ষার্থীদের চলমান শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের অহিংস বৈশিষ্ট্য অক্ষুণ্ন রাখার জন্য সরকার, আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে। অন্যদিকে দাবি আদায়ের জন্য আন্দোলনের অধিকার চর্চায় শান্তিপূর্ণ পথ থেকে বিচ্যুত করার জন্য যে কোন প্ররোচনা প্রতিহত করে জনজীবন বিপন্ন হতে পারে এমন কোন কার্যক্রম থেকে নিজেদেরকে দূরে রাখার জন্য টিআইবি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানায়।

You Might Also Like