প্রধানমন্ত্রী বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে একবারও বক্তব্য দেননি : কাদের

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে একবারও বক্তব্য দেননি বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

২২ আগস্ট মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ দাবি করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের। এর আগে সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত জরুরি সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানান বিএনপির নেতারা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মিথ্যাচারের মাধ্যমে নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টির চক্রান্ত করছে বিএনপি। বিএনপি শেখ হাসিনার বক্তব্যের অপব্যখ্যা দিচ্ছে। মিথ্যা তথ্য দিয়ে জাতিকে বিভ্রান্ত করছে। মিথ্যাচারের মাধ্যমে নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টির চক্রান্ত করছে।

আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘আমাদের নেত্রী আওয়ামী সভাপতি একবারও বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেন নাই।’ তিনি বলেন, বিএনপির অনেক নেতা একাধিক ফৌজদারি মামলার আসামি। তাই তারা বিশেষ কৃপার দৃষ্টির আশায় জাতিকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেছে।

বিএনপির বক্তব্যে জাতিকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, ‘তারা সংবাদ সম্মেলনে মিথ্যা তথ্য তুলে ধরে অপরাজনীতি শুরু করেছে। জাতি যাতে বিভ্রান্ত না হয় সে জন্য আমরা সাংবাদিকদের মাধ্যমে জবাব দিচ্ছি।’

বিএনপির সংবাদ সম্মেলন থেকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে অশালীন বক্তব্য দেওয়া হয়েছে দাবি করে কাদের বলেন, সামরিক শাসনের গর্ভ থেকে জন্ম নেওয়া দলটির কাছ থেকে এর বেশি কিছু আশা করা যায় না।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুল মতিন খসরু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ।

You Might Also Like