পেরুর বিপক্ষে ব্রাজিলের বড় জয়

সম্প্রতি বার্সেলোনার জার্সিতে প্রায় প্রতি ম্যাচেই গোল পাচ্ছেন নেইমার। কিন্তু দেশের জার্সিতে সর্বশেষ দুই ম্যাচে গোলের দেখা পাননি সময়ের সেরা এই তারকা। তারপরও বুধবার সকালে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে জিততে সমস্যা হয়নি পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলকে। প্রতিপক্ষের মাঠে পেরুকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে কার্লোস দুঙ্গার দল।

 

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের গত ম্যাচে প্রতিপক্ষ হিসেবে আর্জেন্টিনাকে পেয়েছিল ব্রাজিল। কিন্তু ইনজুরিগ্রস্ত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের পেয়েও পুরো পয়েন্ট আদায় করতে পারেনি নেইমার বাহিনী। মেসি-আগুয়েরো-তেভেজরা দলে না থাকলেও প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই ফিরতে হয়েছে তাদের।

 

তবে পেরুর বিপক্ষে ঠিকই জয়ে ফিরেছে কার্লোস দুঙ্গার প্রশিক্ষিত দলটি। চেনা মাঠ সালভাদরের ফন্তে নোভায় ম্যাচের ২২ মিনিটেই এগিয়ে যায় ব্রাজিল। এ সময় ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন ডগ্লাস কস্তা। চেলসি মিডফিল্ডার উইলিয়ানের সহায়তায় স্বাগতিক দর্শকদের উল্লাসে ভাসিয়েছেন তিনি। দেশের জার্সিতে এটা কস্তার দ্বিতীয় গোল।

 

বিরতির আগে দলের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার গোলের জন্য দারুণ এক সুযোগ তৈরি করলেও বল কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পাঠাতে পারেননি। ফলে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যেতে হয় তাদের। বিশ্রাম শেষে ম্যাচের ৫৭ মিনিটে সেলেসাওদের এগিয়ে দেন রেনাতো অগুস্তো। কস্তার পাস থেকে ডি বক্সের ভেতরে নিচু শটে দলের ব্যবধান ২-০ করেন করিন্থিয়ান্সের এই মিডফিল্ডার।

 

ক্লাবের জার্সি গায়ে নিয়মিত গোল পাওয়া নেইমার দেশের জার্সিতেও কম চেষ্টা করেননি। ম্যাচের ৬৭ মিনিটে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার ও গোলরক্ষককে কাটিয়ে বল জালেও জড়িয়েছিলেন তিনি। কিন্তু  অফসাইডের খড়্গে পড়ে তার সেই গোল কাটা পড়ে।

 

তবে নেইমারে এই গোলটি বাদ হলেও ম্যাচের ৭৭ মিনিটে আরো একধাপ এগিয়ে যায় ব্রাজিল। এ সময় স্বাগতিকদের হয়ে গোল করেন ফিলিপ লুইস। কস্তার জোরালো শট পেরু গোলরক্ষক ফিরিয়ে দিলে ফিরতি শটে তা জালে পাঠান অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ তারকা লুইস। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হওয়ায় পেরুর বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল।

 

এ জয়ের ফলে ৪ ম্যাচ শেষে ৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। অন্যদিকে চার ম্যাচে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার নবম স্থানে রয়েছে পেরু। আর  আগের মাচে চিলির বিপক্ষে জয় পাওয়া উরুগুয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। সমান ম্যাচে পুরো ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে রয়েছে ইকুয়েডর।

 

You Might Also Like