পুলিশের ওপর হামলা করেছে মৃত ব্যক্তি!

খুলনা থানা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রাক্তন নেতা মৃত মোস্তফা আরিফ সিদ্দিকী শুভ!

এক বছর আগে মারা গেলেও গত ৪ মে তার হামলায় কর্তব্য কাজে বাধা সৃষ্টি হয়েছে বলে এজাহারে দাবি করেছে পুলিশ। পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আসামি করা হয়েছে এই নেতাকে। এদিকে মৃত নেতার নামে মামলা হওয়ায় দলীয় নেতা-কর্মীরা হতবাক হয়েছেন।

মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন মোস্তফা আরিফ সিদ্দিকী শুভ। ২০১৬ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে খুলনা সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) দীপক চন্দ্র পালের দায়ের করা মামলায় মৃত মোস্তফা আরিফ সিদ্দিকী শুভকে ৭ নম্বর আসামি করা হয়। এ ছাড়া মামলায় দলের খুলনা মহানগর আহ্বায়ক আজিজুল হাসান দুলু, যুগ্ম আহ্বায়ক গাজী সোয়েব উদ্দিন মিন্টু, মো. ইকরামুল হক হেলাল, নূরুল ইসলাম লিটন, শরিফুল আনাম, মো. শকিল আহম্মেদ, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, কামরুল ইসলাম. মো. ইয়াসিনসহ অজ্ঞাত ১৫-২০ জন উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে এসআই দীপক চন্দ্র পাল বলেন, বৃহস্পতিবার সাড়ে ৫টার দিকে আসামিরা থানার মোড়সংলগ্ন সড়কে সংঘবদ্ধ হয়ে রাস্তায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। পুলিশ এতে বাধা দিলে তারা পুলিশের ওপর হামলা, মারধর ও গাড়ি ভাঙচুর করে।

খুলনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজানুর রহমান এ প্রসঙ্গে বলেন, ভুলক্রমে শুভর নাম এজাহারে চলে এসেছিল। পরে এজাহার পরিবর্তন করা হয়েছে।

মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আজিজুল হাসান দুলু বলেন, মামলায় ৭ নম্বর আসামি করা হয়েছে মোস্তফা আরিফ সিদ্দিকী শুভকে। যে কিনা এক বছর আগে আমাদের ছেড়ে গেছেন। কিন্তু মৃত্যুর পরও মুক্তি পায়নি শুভ। এর চেয়ে কষ্টদায়ক আর কী হতে পারে। পুলিশের এই দায়িত্বজ্ঞানহীন কাণ্ডে হতবাক হয়েছি।

You Might Also Like