পুতিনের রহস্যময়ী কন্যাকে নিয়ে নতুন গুঞ্জন

বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি ভ্লাদিমির পুতিন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে দীর্ঘদিন রাশিয়া শাসন করছেন তিনি। স্ত্রী ও দুই কন্যাকে নিয়ে সুখের সংসার ছিল তার। কিন্তু স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর পুতিনের দুই কন্যাও একরকম অন্তরালে চলে যান। তারা কোথায়, কীভাবে রয়েছেন সে ব্যাপারে স্পষ্ট করে কিছু জানা যায় না। পুতিনকন্যাদের নিয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মিথ হাজির করানো হয়।

এবার গুঞ্জন বের হয়েছে পুতিনের ছোট মেয়ে ক্যাটরিনা ভ্লাদিমিরনোভা টিকোহনোভা (২৮) অন্তরাল থেকে জনসমক্ষে হাজির হয়েছেন।

পুতিনবিরোধী নেতা অ্যালেক্স নাভালিন তার ফেসবুক পেজে লেখেন, মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটির একটি প্রকল্পপ্রধান হিসেবে কর্মরত রয়েছেন টিকোহনোভা। দেশের শিক্ষাব্যবস্থাকে এগিয়ে নিতে পুতিনকন্যা বিশ্ববিদ্যালয়ের সায়েন্টিফিক কাউন্সিলে কাজ করছেন।

নাম গোপন রাখা শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মকর্তা টিকোহনোভার বিশ্ববিদ্যালয়ে সংশ্লিষ্ট কাজের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। তবে তার কাছে সরাসরি পৌঁছানো সম্ভব হয়নি।

অন্য একটি সূত্র জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নতির জন্য ১৭ বিলিয়ন ডলারের একটি প্রকল্পে অন্যদের সঙ্গে নিয়োজিত রয়েছেন টিকোহনোভা। দেশের বিজ্ঞান শিক্ষা এগিয়ে নেওয়াই এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য।

ক্রেমলিন পুতিনের ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বিষয়ে গোপনীয়তা বজায় রাখে। এ ব্যাপারে কোনো ধরনের তথ্য আদান-প্রদান তো করেই না এবং কারোর নাকগলানোও পছন্দ করে না ক্রেমলিন। পুতিনের বড় মেয়ে মারিয়া (২৯) ও স্ত্রী কোথায় ও কেমন আছেন, তা অনেকের কাছে এখনো অজানা। কেউ কেউ বলেন, তারা বিদেশে আশ্রয় নিয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে শক্ত কোনো প্রমাণ হাজির করতে পারেননি তারা। পুতিনের সঙ্গে ক্রেমলিনে থাকাকালেও তাদের জনসমক্ষে তেমন দেখা যায়নি।

You Might Also Like