হোম » পিতার আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইছেন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী শিব্বীর আহমেদ

পিতার আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইছেন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী শিব্বীর আহমেদ

admin- Friday, July 21st, 2017

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৯ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রয়াত সংসদ সদস্য মরহুম আলহাজ¦ জালাল আহমেদের পুত্র মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি, লেখক-সাংবাদিক শিব্বীর আহমেদ দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। ১৯ জুলাই এনআরবি নিউজকে এ কথা বলেছেন শিব্বির। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জোরোশোরেই প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নেমেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। প্রার্থী নির্বাচনের কাজও শুরু করেছে দলটির হাই কমান্ড। মনোনয়ন প্রত্যাশীরা মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। পিতা এমপি বা মন্ত্রী ছিলেন এমন কয়েকটি পরিবারের সদস্যরা, বিশেষ করে তাদের পুত্র ও কন্যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাচ্ছেন। পারিবারিক ঐতিহ্য, দলের প্রতি আনুগত্য, ক্লিন ইমেজ নিয়ে যেসব এমপি-মন্ত্রীর পুত্র-কন্যারা দলের মনোনয়ন চাচ্ছেন তার অন্যতম হলেন যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে প্রবাসী শিব্বীর আহমেদ।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও শিব্বীর আহমেদ তার পিতার আসন কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) থেকে বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য দরখাস্ত করেছিলেন। পিতা মরহুম জালাল আহমেদ এর পদাংক অনুসরন করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত পারিবারিক ভাবেই শিব্বির আজীবন আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত আছেন। বর্তমানে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করার পাশাপাশি ‘খবর ডট কম’ নামক একটি ওয়েব পোর্টাল সম্পাদনা করে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের চেতনা বিকাশে কাজ করছেন।

শিব্বীরের পিতা জালাল উদ্দীন আহমেদ ১৯৪৯ সালে আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার সময় থেকেই আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। ৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৬৪ এর ‘পূর্ব পাকিস্তান রুখিয়া দাঁড়াও’ আন্দোলন, ৬৬ এর ৬ দফা আন্দোলন, ৬৯ এর গণ আন্দোলনের মাধ্যমে ধীরে ধীরে তিনি তার রাজনৈতিক মেধা ও প্রজ্ঞার মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছাকাছি চলে এসেছিলেন। মরহুম জালাল আওয়ামী লীগের পক্ষে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য এবং ‘৭০ এর নির্বাচনে তিনি সংসদ সদস্য হিসাবে লাকসামের প্রতিনিধিত্ব করেন।

১৯৭১ সালে ৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রেসকোর্সের ঐতিহাসিক ভাষণের পূর্বে তিনি পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন। বাঙালির মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় গেরিলা ট্রেনিং নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। ১৯৭২ সালে নবগঠিত বাংলাদেশের সংবিধানকে আইনে পরিনত করতে যে কয়জন সংসদ সদস্য সংবিধানের প্রস্তাবনায় স্বাক্ষর করেন আলহাজ্ব জালাল উদ্দীন আহমেদ তাদের অন্যতম।

মরহুম জালাল লাকসাম থানা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক, কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হিসাবে দীর্ঘদিন কাজ করেন। ২০০৯ সালের ১৪ জানুয়ারি তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি আওয়ামী রাজনীতি এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনার একজন শক্তিশালী সংগঠক ছিলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে সংসদের প্রথম অধিবেশনে মরহুম জালাল উদ্দীন আহমেদ’র নামে শোক প্রস্তাব গ্রহন করা হয়। শিব্বীর আহমেদ ছাত্র থাকাকালে লাকসাম পাইলট হাইস্কুল, নওয়াব ফয়জুন্নেসা সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। আওয়ামী রাজনীতির সাথেই আজীবন জড়িত থাকায় সুদূর এ প্রবাসেও তিনি মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক হিসাবে লাকসামকে জেলায় পরিনত করার জন্য লাকসাম-মনোহরগঞ্জে নিরলস ভাবে কাজ করে চলেছেন।

কুমিল্লা-৯ আসন লাকসাম-মনোহরগঞ্জকে বিশ^ দরবারে পরিচিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশের প্রথম উপজেলা/থানা ভিত্তিক ওয়েব ‘লাকসাম ডট কম’ চালু করেন। এছাড়াও তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ‘বৃহত্তর লাকসাম এসোসিয়েশন অব নর্থ আমেরিকা ইনক’ প্রতিষ্ঠা করেন।

রাজনীতি ও সাংবাদিকতার পাশাপাশি লেখালেখির সাথেও শিব্বীর আহমেদ জড়িত। বাংলা একাডেমী আয়োজিত গ্রন্থমেলায় শিব্বীর আহমেদ’র এ পর্যন্ত ১৩টি উপন্যাস ও কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক দুটি উপন্যাস, দুটি কাব্যগ্রন্থ সাই-ফাই, ও প্রেমের উপন্যাস রয়েছে। আগামী ২০১৮ সালে বাংলা একাডেমি আয়োজিত বইমেলায় তার আরো তিনটি উপন্যাস প্রকাশ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে একাদশ জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী শিব্বীর আহমেদ বলেন, ‘দল যদি মনোনয়ন দেয় তাহলে বাবার আদর্শ অনুসরন করেই কুমিল্লা-৯ আসনের মানুষের জন্য কাজ করার সরাসরি সুযোগ পাব। লাকসামকে জেলায় পরিনত করার স্বপ্ন নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করে চলেছি। দলীয় মনোয়ন পেলে সেই লক্ষ্যে নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাবো।’ শিব্বীর আহমেদ আরো বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কণ্যা শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অবিচল আস্থা রেখেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোয়ন চাইব। তিনি যদি আমাকে মনোনয়ন না দেন, তাহলে তিনি যাকে মনোনয়ন দেবেন তার পক্ষেই লাকসামবাসীর জন্য কাজ করে যা’

যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী আরো কয়েকজন ইতিমধ্যেই বাংলাদেশে ফিরে গিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন লাভের চেষ্টা করছেন। এদের অন্যতম হলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান নিজাম চৌধুরী প্রমুখ।  সিদ্দিকুর রহমান বগুড়া এবং নিজাম চৌধুরী ফেনী থেকে নির্বাচনে আগ্রহী বলেও শোনা যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদও জামালপুরের একটি আসন থেকে মনোনয়নের চেষ্টায় রয়েছেন বলেও জানা যায়। এরা ৩ জনই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত সৈনিক বলে এই মার্কিন মুল্লুকে খ্যাতি রয়েছে।