পাকিস্তানে দাবদাহে মৃতের সংখ্যা ৭৮২ : হাসপাতালে জরুরি অবস্থা

পাকিস্তানে সিন্ধু প্রদেশে ভয়াবহ দাবদাহে মৃতের সংখ্যা ৭৮০ ছাড়িয়ে গেছে। দাবদাহের কারণে নানা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ঢল নেমেছে হাসপাতালগুলোতে। ফলে হাজার হাজার মানুষের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে প্রাদেশিক হাসপাতালগুলোর ডাক্তাররা। এরইমধ্যে এসব হাসপাতালে রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

পাকিস্তানের সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির গণমাধ্যম খবর দিয়েছে- দাবদাহে মৃতের সংখ্যা ৭৮২ জনে পৌঁছেছে। এরমধ্যে বেশিরভাগ মারা গেছে বন্দরনগরী করাচিতে। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। শহরটিতে তাপামাত্রা আগেই ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছেছে। গতকাল (মঙ্গলবার) করাচি শহরের তাপামাত্রা ছিল ৪৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

দেশটির আবহাওয়াবিদরা গতকাল সন্ধ্যা থেকে বজ্রসহ ঝড়বৃষ্টি শুরুর কথা জানিয়েছেন এবং তা তিন ধরে চলবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন। তারা জানান, আরব সাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টি হওয়ায় বজ্র ও ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। একই কারণে করাচিতে গত ক’দিন প্রচণ্ড দাবদাহ বয়ে গেছে। পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডন জানিয়েছে, গত সন্ধ্যা থেকে সমুদ্রের ওপর দিয়ে শীতল বাতাস বইতে শুরু করেছে এবং তাপমাত্রাও কমতে শুরু করেছে।

এদিকে, পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাঞ্জাব প্রদেশেও দাবদাহে অন্তত সাতজন নিহত হয়েছে। দাবদাহ মোকাবেলায় জরুরি পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ পাকিস্তানের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।

You Might Also Like